শিশুকে কৌশলে দোকানের পেছনে নিয়ে ধর্ষণ, ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার

প্রকাশ: ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০     আপডেট: ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০   

গৌরনদী (বরিশাল) প্রতিনিধি

গ্রেপ্তার হারুন খলিফাকে বৃহস্পতিবার বরিশাল আদালতে সোপর্দ করা হয়। ছবি: সমকাল

গ্রেপ্তার হারুন খলিফাকে বৃহস্পতিবার বরিশাল আদালতে সোপর্দ করা হয়। ছবি: সমকাল

বরিশালের গৌরনদীর হোসনাবাদ বাজারের এক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে চতুর্থ শ্রেণির শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। বুধবার বিকেলের এ ঘটনায় রাতেই অভিযুক্ত ব্যবসায়ী হারুন খলিফাকে (৪৫) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

ধর্ষণের শিকার শিশুর পরিবার ও পুলিশ জানায়, শিশুটি গৌরনদীর একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চতুর্থ শ্রেণিতে পড়ে। তাদের বাড়ি পার্শ্ববর্তী কোটালীপাড়া উপজেলায়। কয়েক বছর আগে জীবিকার প্রয়োজনে গৌরনদীর হোসনাবাদ এলাকায় আসেন শিশুটির বাবা। তিনি দিনমজুর এবং তার স্ত্রী বাজারে ঝাড়ুদারের কাজ করেন। শিশুটিকে নিয়ে তার পরিবার একটি বাসায় ভাড়া থাকে। বুধবার বেলা আড়াইটার দিকে লেপ-তোষকের দোকানদার হারুন খলিফা (৪৫) শিশুটিকে কৌশলে দোকানের পেছনে ডেকে নিয়ে মুখ চেপে ধর্ষণ করে। শিশুটি বাসায় ফিরে তার মাকে এ ঘটনা জানায়। এরপর তার মা স্থানীয় ইউপি সদস্যকে ঘটনাটি জানালে তিনি পুলিশে খবর দেন।

গৌরনদী মডেল থানা পুলিশ রাত ৯টার দিকে ওই ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার ও শিশুটিকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

গৌরনদী মডেল থানার ওসি (তদন্ত) মো. মাহাবুরুর রহমান জানান, শিশুটির মা বাদী হয়ে বুধবার রাতে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। শিশুটিকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য বৃহস্পতিবার সকালে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। গ্রেপ্তার ব্যবসায়ীকে বরিশাল আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।