শরীয়তপুরের গোসাইরহাট উপজেলায় মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ছাত্রলীগের নেতাসহ দুইজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও একজন। 

বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে উপজেলার কুচাইপট্রি ইউনিয়নের সাইক্ষ্যা ব্রিজের ওপরে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- উপজেলার কোদালপুর ইউনিয়নের বুলু সরদারপাড়া গ্রামের সাবেক চেয়ারম্যান মো. বাচ্চু খানের ছেলে রিবল মাহমুদ খান রাজ (২৩)। সে কোদালপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সরকারি সামসুর রহমান কলেজের রাষ্টবিজ্ঞান বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র। অপরজন কোদালপুর বেপারীপাড়া গ্রামের হাবি বেপারীর ছেলে মো. সাইফুল ইসলাম (১৯)। সে একই কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র। আর আহত সিয়াম সরদার (২০) বুলু সরদারপাড়া গ্রামের মো. কাঞ্চন সরদারের ছেলে।

দুর্ঘটনার বিষয়টি সমকালকে নিশ্চিত করে গোসাইরহাট থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোল্যা সোহেব আলী জানান, গোসাইরহাট উপজেলার কোদালপুর এলাকা থেকে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রাজের নের্তৃত্বে তিনটি মোটরসাইকেল নিয়ে নয়জন বন্ধু ও এলাকার ছোট ভাইরা কুচাইপট্রি ঘুরতে যায়। রাত ১০টার দিকে কুচাইপট্রি থেকে আসার পথে কুচাইপট্রি-গোসাইরহাট ইউনিয়ন সড়কে অবস্থিত সাইক্ষ্যা ব্রিজের ওপর পৌঁছালে মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ব্রিজের রেলিংয়ের সঙ্গে ধাক্কা লেগে তারা পড়ে যান। এতে তারা গুরুতর আহত হন। স্থানীয়রা আহত অবস্থায় তাদের গোসাইরহাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন। পরে সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রাত ১১টার দিকে রিবল মাহমুদ খান রাজ ও মো. সাইফুল ইসলামকে মৃত ঘোষণা করেন। আর আহত সিয়াম সরদারের অবস্থা আশঙ্কাজনক দেখে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকায় প্রেরণ করা হয়।