মঠবাড়িয়ায় স্কুলছাত্রীকে দল বেঁধে ধর্ষণ, গ্রেপ্তার ২

প্রকাশ: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০     আপডেট: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০   

মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) প্রতিনিধি

ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তাররা -সমকাল

ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তাররা -সমকাল

মঠবাড়িয়া পৌর শহরের একটি বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির এক ছাত্রীকে দলবেঁধে পালাক্রমে ধর্ষণের অভিযোগে নয়ন মোল্লা (১৯) ও আরিফুল ইসলাম (২০) নামে দুই যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

রোববার গভীর রাতে পৌর শহরের টিঅ্যান্ডটি সড়কের কল্লাকাটা ব্রিজ সংলগ্ন ইলিয়াসের বাসা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। 

নয়ন উপজেলার সাপলেজা ইউনিয়নের বাদুরতলী গ্রামের মজিবর মোল্লার ছেলে ও আরিফুল জরিপের চর গ্রামের মৃত. মহিউদ্দিন বাদশার ছেলে।

পুলিশ জানায়, পৌর শহরের এক ব্যবসায়ীর মেয়ে ওই স্কুলছাত্রী রোববার রাত সাড়ে ৯টার দিকে প্রাইভেট পড়ে বাসায় ফেরার পথে ওই দুই যুবক দেশীয় অস্ত্রের মুখে অপহরণ করে কল্লাকাটা ব্রিজ সংলগ্ন ভাড়া বাসায় নিয়ে আটকে রাখে। এরপর নয়ন মোল্লা ও আরিফুল ইসলাম প্রায় ছয় ঘণ্টা ধরে পালাক্রমে ধর্ষণ করে।

এদিকে ওই ছাত্রী বাসায় না ফেরায় তার পরিবারের সদস্যরা খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে পুলিশকে অবহিত করে। মঠবাড়িয়া থানার উপপরিদর্শশ শহিদুল ইসলাম গোপন সংবাদের ভিত্তিতে একদল পুলিশ রাতভর অভিযান চালিয়ে ভোরে ওই বাসা থেকে দুই যুবককে আটক এবং স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার করে।

মঠবাড়িয়া থানার ওসি মো: মাসুদুজ্জামান মিলু জানান, এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর বাবা বাদি হয়ে ওই দুই যুবককে আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করেন। ওই ছাত্রীকে শারীরিক পরীক্ষার জন্য সোমবার দুপুরে পিরোজপুর জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে।