সুজানগরে গৃহবধূকে গণধর্ষণের অভিযোগ, গ্রেপ্তার ১

প্রকাশ: ২৩ মার্চ ২০২০   

সুজানগর (পাবনা) প্রতিনিধি

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

পাবনার সুজানগর পৌরসভার ভবানীপুর এলাকায় এক গৃহবধূকে গণধর্ষণের অভিযোগে সুমন হোসেন পটল (২২) নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

সুমন পৌর এলাকার চর সুজানগর এলাকার মান্নান সরদারের ছেলে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত আরেক ধর্ষক চর সুজানগর এলাকার মো. ফিরোজ খান আচ্চুর ছেলে সুজানগর পৌর ছাত্র লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মো. সুমন খানসহ (২০) অভিযুক্ত আরও চারজন পলাতক রয়েছেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সুজানগর থানার ওসি (তদন্ত) হাদিউল ইসলাম জানান, ওই গৃহবধূ রোববার সন্ধ্যায় সাঁথিয়া উপজেলার বনগ্রাম মিয়াপুর থেকে সুজানগর হয়ে কুলাদী বোনের বাড়িতে যাচ্ছিলেন। সুজানগর জিরো পয়েন্ট মোড় সিএনজি স্টেশন থেকে তার দুলাভাই তাকে নিতে আসেন। পথের মধ্যে এলাকার চিহ্নিত বখাটেরা দলবদ্ধভাবে তাকে পথ রোধ করে। তারা গহবধূর দুলাভাইকে মারপিট করে তাকে ভয় দেখিয়ে ভগিয়ে দেয় এবং গৃহবধূকে রাস্তার পাশে গম ক্ষেতের মধ্যে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। পরে ওই নারীর পরিবারের সদস্য ও ভিকটিম নিজে সুজানগর থানায় ৫ জনের নাম উল্লেখ করে সোমবার একটি মামলা করেন। এরই প্রেক্ষিতে অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত সরদার সুমন ওরফে পটল নামে এক ধর্ষককে আটক করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ঘটনার বিষয়ে আমরা সত্যতা পেয়েছি।

তিনি বলেন, গণধর্ষণের শিকার গৃহবধূকে ডাক্তারি পরিক্ষার জন্য পাবনা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এই ঘটনার সঙ্গে অন্য যারা জড়িত রয়েছে তাদের গ্রেপ্তারের জন্য অভিযান চালানো হচ্ছে।