করোনাভাইরাস প্রতিরোধে দেশে সব ধরনের গণপরিবহন বন্ধ থাকলেও  ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কে ট্রাক, মাহেন্দ্র, ইজিবাইকে করে মানুষের ঘরে ফেরা অব্যাহত রয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল ১১টার দিকে কালকিনি ভূরঘাটায় ট্রাকে করে যাত্রীবহন করতে দেখা গেছে।

এদিকে সামাজিক দূরত্ব না মেনে এভাবে মানুষজন ঘরে ফেরায় করোনা ঝুঁকি আরও বেড়ে যেতে পারে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, করোনাভাইরাস প্রতিরোধে মাদারীপুরের পুরো জেলায় কাঁচাবাজার, মুদিবাজার, ফার্মেসিসহ নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের দোকান বাদে বন্ধ রয়েছে সব দোকানপাট। সংক্রমণ এড়াতে শিবচরের পর গোটা মাদারীপুর জুড়ে জনসমাগমে সীমিত করা হয়েছে। জেলা প্রশাসক এ ব্যাপারে একটি গণবিজ্ঞপ্তি জারি করেছেন। পাশাপাশি প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাইরে কাউকে না যেতে কঠোর হুঁশিয়ারি দিয়েছে জেলা প্রশাসন।

এদিকে স্থানীয় সংসদ সদস্য জাতীয় সংসদের চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরীর পক্ষ থেকে শিবচরের চিহ্নিত ৪ এলাকায় হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা প্রবাসী ও নিম্ন আয়ের মানুষসহ উপজেলার আরও ১ হাজার পরিবারের মাঝে খাবার ও ওষুধ পৌছানোর কাজ শুরু হয়েছে।

জেলার সির্ভিল সার্জন মো. শফিকুল ইসলাম জানান, সরকারি একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন খোলা হয়েছে। শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ২ চিকিৎসককে হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে।  এছাড়া প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনের জন্য ১০ শয্যার বেড প্রস্তুত রাখা হয়েছে। করোনা রোগীদের সহায়তার জন্য ৬ জন চিকিৎসক, ৬ জন নার্স, আয়া, ওয়ার্ড বয়, অফিস সহায়ক, পরিচ্ছন্নকর্মী সংযুক্ত করা হয়েছে।

বিষয় : সারাদেশ করোনাভাইরাস গণ পরিবহন বন্ধ

মন্তব্য করুন