করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে অভিনব উদ্যোগ

প্রকাশ: ২৬ মার্চ ২০২০   

চট্টগ্রাম ব্যুরো

নির্দিষ্ট দূরত্বে আঁকা লাল বৃত্তে দাঁড়িয়ে ওষুধ কিনছেন সবাই -সমকাল

নির্দিষ্ট দূরত্বে আঁকা লাল বৃত্তে দাঁড়িয়ে ওষুধ কিনছেন সবাই -সমকাল

চট্টগ্রামে ওষুধ ও মুদি দোকানের সামনের জনসমাগম থেকে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে অভিনব উদ্যোগ নিয়েছে জেলা প্রশাসন। এসব দোকানের সামনে তিন ফুট দূরুত্ব বজায় রেখে বৃত্ত এঁকে দেওয়া হয়েছে। জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেনের নির্দেশে চট্টগ্রাম জেলার বিভিন্ন উপজেলায় এ উদ্যোগ বাস্তবায়ন করছেন স্থানীয় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা। 

প্রথম দিনে এটি কার্যকর করা হয়েছে পটিয়া ও রাউজান উপজেলায়। ক্রেতারা দোকানে এসে এঁকে দেওয়া বৃত্তে দাঁড়াচ্ছেন। সামনের ব্যক্তিটি কেনাকাটা সেরে দোকানের সামনের গোলচিহ্নিত স্থান ত্যাগ করলে পরের জন এসে সেখানে অবস্থান নিয়ে কেনাকাটা করছেন। ফলে ঘর থেকে বের হওয়া লোকজন একে অন্যের সংস্পর্শে আসছেন না।

ব্যতিক্রমী এ উদ্যোগ সম্পর্কে রাউজান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জোনায়েদ কবীর সোহাগ বলেন, করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে লোকজন যাতে কেনাকাটা করতে এসে একজন আরেকজনের সংস্পর্শে না এসে সেজন্য দোকানের সামনে বৃত্ত এঁকে দেওয়া হয়েছে। প্রথমদিন উপজেলার ফকির হাট এবং কাগতিয়া বাজারে ওষুধ এবং মুদি দোকানের সামনে বৃত্ত এঁকে দিয়েছি। গোলচিহ্ন মেনে কেনাকাটা করতে স্থানীয়দের আমরা উদ্বুদ্ধ করছি। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে বাঁচতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার বিষয়ে সচেতন করেছি।

পটিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফারহানা জাহান উপমা জানান, প্রথমদিন তারা পটিয়া পৌরসভা এলাকায় ওষুধ ও মুদির দোকানের সামনে বৃত্ত এঁকে দিয়েছেন। শুক্রবার উপজেলার শান্তির হাটে এ কর্মসূচি বাস্তবায়ন করা হবে। পর্যায়ক্রমে পুরো পটিয়াতে এ কার্যক্রম বাস্তবায়ন করা হবে।