সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলার রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নের চৈত্রহাটি শ্রী শ্রী জগদীশ্বর মাতা মন্দিরের পুকুরে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে ১ জন নিহত ও ১২ জন আহত হয়েছেন। সোমবার দুপুরে এই ঘটনা ঘঠে।

নিহত কোরবান আলী আকন্দ (৪০) চৈত্রহাটি গ্রামের ছোরমান আলীর ছেলে। আহতদের মধ্যে ৯ জন আদিবাসী সম্প্রাদয়ের। 

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সোমবার দুপুরের দিকে রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আলতাফ হোসেনের নেতৃত্বে ২০/২৫ জন ওই মন্দির সংলগ্ন একটি পুকুরে মাছ ধরতে আসে। এ সময় মন্দিরের লোকজন বাঁধা দিলে উভয়পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষে আহত কোরবান আলী আকন্দকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান। সঘংর্ষে গুরুতর আহত হন ৩ আদিবাসী। 

রামৃকষ্ণপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম হিরো ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মন্দির সংলগ্ন পুকুরে মাছ ধরা ও আবাদ করার ওপর আদালতের একটি স্থিতিশীল আদেশ রয়েছে। আদেশ অমান্য করে আলতাফ হোসেনের লোকজন মাছ ধরতে আসায় মন্দিরের লোকজন (সবাই আদিবাসী) বাঁধা দিলে সংঘর্ষের সূত্রপাত ঘটে। 

সংলংগা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জেড জেড তাজুল হুদা জানান, ওই এলাকায় পুলিশ পাঠানো হয়েছে। নতুন করে আর যেন সংঘর্ষ না হয় সেজন্য পুলিশ তৎপর রয়েছে।