করোনা সন্দেহে মহাসড়কের পাশে অচেতন অবস্থায় পড়ে থাকা থাকা যুবককে উদ্ধারতো দূরের কথা, সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত ছুঁয়েও দেখলেন না কেউই। খবর পেয়ে দুপুরে উদ্ধারে এলেন দমকল বাহিনীর নির্ভীক সদস্যরা। পিপিই ছাড়াই যুবককে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলেন তারা। শ্রক্রবার দুপুরে সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জ উপজেলার ভুইয়াগাতী খামারবাড়িতে এই ঘটনা ঘটে।

মলমপার্টির খপ্পড়ে পড়ে অচেতন হয়ে থাকলেও বিকেলে হাসপাতালে গিয়ে দেখা যায়, মোটামুটি সুস্থ হয়েছেন যুবকটি। 

ত্রিশোর্ধ ওই যুবকের নাম মিশো। বগুড়া জেলার গাবতলীর বথিয়াভাঙ্গা গ্রামের বেল্লাল হোসেনের ছেলে তিনি। বর্তমান লকডাউন পরিস্থিতিতেই ঢাকা থেকে বাড়ি আসার পথে সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জ উপজেলার

ভুইয়াগাতী খামারবাড়িতে ঢাকা-বগুড়া মহাসড়কে পাশে অচেতন হয়ে পড়েছিলেন। করোনা আক্রান্ত হবার ভয়ে স্থানীয়রা তাকে ছুঁয়ে না দেখলেও দমকল বাহিনীর লোকজন দুপুরে উদ্ধার করে রায়গঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে ভর্তি করেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আমিরুল ইসলাম তৌহিদ বলেন, হয়তো মলম পার্টির খপ্পড়ে পড়ে সব কিছু হারিয়ে রাস্তার পাশে পড়ে ছিলেন ওই যুবক। অচেতন থাকলেও স্যালইনসহ তাকে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। স্বজনদের খবর দেওয়া হয়েছে। বগুড়ার শজিমেক বা মোহাম্মদ হাসপাতালে রেফার করা হতে পারে তাকে।

রায়গঞ্জ দমকল বাহিনীর টিম লিডার হামিদুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাই।