চট্টগ্রামে করোনাআক্রান্ত আরও এক রোগীর মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার সকালে ফৌজদারহাটের বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজে (বিআইটিআইডি) আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এ নিয়ে চট্টগ্রামে করোনা আক্রান্ত মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল পাঁচ জনে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি সমকালকে বলেন, ‘বৃহষ্পতিবার রাতে করোনা পজিটিভ হওয়া রোগীটি শুক্রবার সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। হাসপাতালে ভর্তি করানোর পর ওই রোগীকে অক্সিজেন দিয়ে রাখা হয়েছিল। তার ডায়াবেটিক, শ্বাসকষ্টসহ শারীরিক বিভিন্ন সমস্যা ছিল। নতুন মারা যাওয়া ওই পুরুষ নগরীর পাহাড়তলী থানাধীন সরাইপাড়ার বাসিন্দা। তার বয়স ৬৫ বছর। একই এলাকায় এর আগেও একজন নারী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা যান।’

তিনি জানান, বৃহস্পতিবার রাতে বিআইটিআইডিতে ১১১ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এর মধ্যে ১৯ জনের রিপোর্ট পজিটিভ আসে। নতুন আক্রান্তদের একজন চট্টগ্রামের ও ১৮ জন বৃহত্তর নোয়াখালীর বাসিন্দা। বিআইটিআইডিতে গত ২৬ মার্চ থেকে নমুনা পরীক্ষা শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত এক হাজার ১২৫ জনের নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। এর মধ্যে ৫৫ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে ৩৩ জন চট্টগ্রামের। মোট মৃতের সংখ্যা এক শিশুসহ পাঁচ জন।