কুড়িগ্রামের উলিপুরে ছাগল চুরিতে জড়িত থাকার অভিযোগে এক রিকশাচালককে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। সোমবার দুপুরে উপজেলার গুনাই গাছ এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। 

এলাকাবাসী জানায়, উপজেলার গুনাইগাছ ইউনিয়নের গাবেরতল এলাকার মহুবর রহমানে ছেলে মিনহাজুল ইসলাম মুসার ১০-১২ দিন আগে একটি ছাগল চুরি হলে তিনি থানায় অভিযোগ করেন। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় সালিশ হলেও কোন সমাধান হয়নি। সোমবার দুপুরে একই গ্রামের খরিয়া মাহমুদের ছেলে রিকশাচালক সুরুজ্জামানকে (৪২) বাড়ির সামনে মুসা তাকে আটক করেন। সেখানে সুরুজ্জামানকে ছাগল চুরির সঙ্গে জড়িত সন্দেহে জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে নির্যাতন শুরু করলে তিনি বলেন, ‘দুই যুবক ১০-১২ দিন পূর্বে একটি ছাগল নিয়ে আমার রিকশায় করে উপজেলার তবকপুর ইউনিয়নের রেলগেট নামকস্থানে গিয়ে ভাড়া দিয়ে আমাকে বিদায় করে দেন। ছাগলটি চুরি করা ছিল কি না তা আমি জানি না।’ কিন্তু এরপরও মিনহাজুল ইসলাম মুসা মারধর করতে থাকলে এক পর্যায়ে সুরুজ্জামান ঘটনাস্থলেই জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। পরে এলাকাবাসী তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের ছেলে মহেদেী হাসান চয়ন বলেনম আমার বাবাকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা. মৌমিতা সাহা জানান, ওই ব্যক্তিকে মৃত অবস্থায় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসা হয়েছে।  

উলিপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, নিহত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ কুড়িগ্রাম মর্গে পাঠানো হবে। আইনগত বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।