নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চারজন চিকিৎসক এবং একজন স্বাস্থ্যকর্মী করোনাআক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন। বুধবার সকালে তাদের নমুনা পরীক্ষার ফল পজেটিভ আসে। এতে লোহাগড়া উপজেলার সব এলাকা লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।

নড়াইলের সিভিল সার্জন ডা. আব্দুল মোমেন সমকালকে এ সব বিষয় নিশ্চিত করেছেন।

ডা. আব্দুল মোমেন বলেন, ‘সকালে লোহাগড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ৪ চিকিৎসকসহ একজন স্টাফের করোনাআক্রান্তের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। এখন লোহাগড়ায় তাদের নিজ নিজ বাড়িতে চিকিৎসা চলছে’। তিনি আরও বলেন, ‘নড়াইল থেকে সংগৃহীত ৬৬টি করোনা নমুনার মধ্যে ৬৩টি রিপোর্ট পাওয়া গেছে। এর মধ্যে ৬ জনের পজেটিভ এবং ৫৭টি নেগেটিভ এসেছে। বাকি তিনটি নমুনার রিপোর্ট এখনও পাওয়া যায়নি’।

করোনা প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি, নড়াইল জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা বলেন, ‘ওই পাঁচ চিকিৎসক-স্বাস্থ্যকর্মীর রিপোর্ট পজিটিভ হলেও তাদের শারীরিক অবস্থা তুলনামূলক ভালো। অবস্থা বুঝে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এ ছাড়া সতর্কতার জন্য উপজেলার সব এলাকা লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে’।

উল্লেখ্য, এর আগে গত ১৩ এপ্রিল লোহাগড়া পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের পারছাত্রা এলাকার এক যুবকের করোনা শনাক্ত হয়। তবে পরে তার নমুনা রিপোর্ট দু’বার নেভেটিভ আসে। এখন তিনি সুস্থ।