নোয়াখালীর সেনবাগের ৩নং ডমুরুয়া ইউপির ২নং ওয়ার্ডে করোনার উপসর্গ নিয়ে এক মাটি কাটা শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। তার মৃত্যুর পর সঙ্গে থাকা ১০-১২ জন শ্রমিক লাশ ফেলে রেখে পালিয়ে যায়।

পরে খবর পেয়ে শনিবার সেনবাগ থানা পুলিশ ও স্বাস্থ্য বিভাগের লোকজন তার লাশ উদ্ধার করে করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহ করেছে। শনিবার দুপুরে বেওয়ারিশ হিসেবে স্থানীয় ভূঁইয়া বাড়ির কবরস্থানে লাশ দাফন করা হয়। তার বাড়ি জেলার বিচ্ছিন্ন দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ায় বলে জানা গেছে। 

সেনবাগ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা (ইউএিইচপিও) মতিউর রহমান লাশ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, করোনার উপসর্গ নিয়ে ওই শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। তার সহযোগী অপর শ্রমিকরা লাশ রেখে পালিয়ে যায়। তার শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করে করোনা পরীক্ষার জন্য চট্টগ্রামে পাঠানো হয়েছে।