রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে বিধবাকে গণধর্ষণের অভিযোগ, আটক ৪

প্রকাশ: ২৮ এপ্রিল ২০২০   

বাঞ্ছরামপুর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

কুমিল্লার হোমনায় এক সন্তানের জননী বিধবাকে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে রাতভর গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। রোববার রাতে উপজেলার ভিটিকালমিনা গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। পরের দিন সকালে কৌশলে পালিয়ে এসে ধর্ষণের শিকার নারী নিজে বাদী হয়ে পাঁচ জনকে আসামি করে হোমনা থানায় মামলা করেন। এতে জড়িত থাকার অভিযোগে এরইমধ্যে চার জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- হোমনা উপজেলার ভিটি কালমিনা গ্রামের রুপ মিয়ার ছেলে মো. রুবেল (২৮), ইউসুফ মিয়ার ছেলে মো. শরিফ মিয়া (২৮), মনু মিয়ার ছেলে সজিব ডিজে (২২), হাজী মিজানুর রহমানের ছেলে মো. রিপন (২৬) এবং আজগর আলীর ছেলে মো. রফিক(৩০)।

থানা পুলিশ ও মামলা সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার গাগুটিয়া ইউনিয়নের আলীপুর গ্রামের বিধবা এক সন্তানের জননী গত রোববার সন্ধ্যায় সন্তানের জন্য খাবার কিনতে বাড়ি থেকে দোকানে যাওয়ার পথে রুবেলসহ অন্যরা তাকে জোর পূর্বক সিএনজিতে তুলে নিয়ে দুলালপুর ইউনিয়নের ভিটিকালমিনা গ্রামের সজিব ওরফে ডিজে এর বাড়িতে নিয়ে যায়। পরে তাকে জোর করে ইয়াবা সেবন করায়। এরপর রাতভর পাঁচজনে মিলে পালাক্রমে তাকে ধর্ষণ করে। পরদিন সোমবার ভোরে সেখান থেকে কৌশলে পালিয়ে এসে ধর্ষণের শিকার নারী নিজে বাদী হয়ে পাঁচজনকে আসামি করে হোমনা থানায় ধর্ষণ মামলা করেন।

হোমনা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আবুল কায়েস আকন্দ বলেন, ধর্ষণের মামলার পাঁচ আসামির মধ্যে ৪ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। একজন এখনও পলাতক। তাকে আমরা খুঁজছি। আসামিরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছে। মঙ্গলবার তাদেরকে কুমিল্লা আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।