কসবায় দুই বোনসহ ৩ স্থানে পুকুরে ডুবে চার শিশুর মৃত্যু

প্রকাশ: ১২ মে ২০২০   

অনলাইন ডেস্ক

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় পুকুরে ডুবে দুই বোনের মুত্যু হয়েছে। এ ছাড়া নওগাঁর সাপাহার ও গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় পুকুরে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যুর ঘটনা ঘটে।

প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

কসবা (ব্রাহ্মণবাড়িয়া): কসবা পৌর এলাকার পানাইয়ারপাড় গ্রামে পুকুরে ডুবে দুই বোনের মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার ওই গ্রামের বাবুল মিয়ার দুই মেয়ে সামিয়া আক্তার (১০) ও সোমাইয়া আক্তার (৬) ঘরের পাশে পুকুরে ডুবে মারা যায়। দুই মেয়েকে হারিয়ে বাবা-মা বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েছে। এ ঘটনায় পুরো গ্রামে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

নওগাঁ: নওগাঁর সাপাহারে মঙ্গলবার সকালে পুকুরে ডুবে ইমামুল হাসান নামের দেড় বছর বয়সের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। ইমামুল হাসান উপজেলার তাজপুর পশ্চিমপাড়া গ্রামের লুৎফর রহমানের ছেলে। সকালে ইমামুলসহ দুই শিশু বাসার অদূরে খেলা করছিল। এ সময় তারা সবার অজান্তে বাড়ির পাশে পুকুরের পানিতে পড়ে যায়। এর মধ্যে দুই পরিবারের লোকজন শিশু দুটিকে খোঁজাখুঁজি করতে থাকে। এ সময় এলাকার কয়েকজন দুই শিশুকে পুকুরে ভাসতে দেখে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসক ইমামুল হাসানকে মৃত ঘোষণা করেন। রাব্বি নামে নামের অপর শিশুর অবস্থার অবনতি হলে তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়।

কোটালীপাড়া (গোপালগঞ্জ): কোটালীপাড়া উপজেলায় পুকুরে ডুবে জায়েদ নামে দেড় বছরের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে উপজেলার সোনাটিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। জায়েদ বাড়ির দক্ষিণ পাশের পুকুর পাড়ে খেলতে গিয়ে পুকুরে পড়ে যায়। পরিবারের লোকজন জায়েদকে খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে পুকুরে তল্লাশি চালায়। একপর্যায়ে পরিবারের সদস্যরা পুকুর থেকে জায়েদকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। জায়েদ সোনাটিয়া গ্রামের সিরাজ শাহর ছেলে।