খুলনায় সাইক্লোন শেল্টারে আশ্রয় নিয়েছেন ৩ লাখ মানুষ

প্রকাশ: ২০ মে ২০২০     আপডেট: ২০ মে ২০২০   

খুলনা ব্যুরো

উপকূলীয় তিন জেলা খুলনা, বাগেরহাট ও সাতক্ষীরায় ১ হাজার ৬৬৭ টি সাইক্লোন শেল্টারে আশ্রয় নিয়েছে ৩ লাখ ৭১ হাজার মানুষ। খুলনা বিভাগীয় কমিশনার ড. মুহাম্মদ আনোয়ার হোসেন হাওলাদার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ঘূর্ণিঝড় আম্পানের প্রভাবে সকাল ৯টা থেকে ভারী বৃষ্টি শুরু হয়েছে খুলনায়। সেই সাথে বইছে ঝড়ো হাওয়া। বাতাসে জোয়ারের কারণে নদীগুলো উত্তাল হয়ে উঠেছে।

শুধুমাত্র খুলনা জেলার ৬২৯ টি সাইক্লোন শেল্টারে এ পর্যন্ত ৫৪ হাজার ৫৫৯ জন আশ্রয় নিয়েছে। অথচ ৮১০টি সাইক্লোন শেল্টারে ধারণ ক্ষমতা ৪ লাখ ৬ হাজার। ঘরের মালামাল ও গবাদি পশু রেখে অনেকে সাইক্লোন শেল্টারে যেতে আগ্রহী হচ্ছে না।

কিছু কিছু সাইক্লোন শেল্টারে সকাল থেকেই খাবার দেয়া হচ্ছে। কিছু কিছু সাইক্লোন শেল্টারে এখনো খাবার দেয়া হয়নি।

খুলনা জেলার উপকূলীয় কয়রা, দাকোপ, পাইকগাছা ও বটিয়াঘাটা উপজেলায় ৩ হাজার ৫৬০ জন স্বেচ্ছাসেবক হ্যান্ড মাইকের সাহায্যে ঝুঁকিপূর্ণ লোকজনকে সাইক্লোন শেল্টারে যাওয়ার জন্য আহ্বান জানাচ্ছেন।

খুলনার সিভিল সার্জন ডা. সুজাত আহমেদ জানান, যদি ঘূর্ণিঝড় আঘাত হানে তাহলে ঝড় পরবর্তী চিকিৎসা কার্যক্রমের জন্য ১১৬টি মেডিকেল টিম গঠন করা হয়েছে।