সাতক্ষীরায় বাড়িঘর-মসজিদ পুনঃনির্মাণের কাজ করছে সেনাবাহিনী

প্রকাশ: ২৩ মে ২০২০   

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি

ছবি: সমকাল

ছবি: সমকাল

ঘূর্ণিঝড় আম্পানের প্রভাবে ক্ষতিগ্রস্ত সাতক্ষীরার বিভিন্ন এলাকায় ক্ষতিগ্রস্ত অসহায় মানুষের খাদ্যসামগ্রী ও চিকিৎসাসেবা দেয়ার পাশাপশি বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান ও বাসস্থান পুনঃনির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছে সেনাবাহিনী। তাদের সঙ্গে বিমান বাহিনীও যোগ দিয়েছে। শনিবার উপজেলার বুড়িগোয়ালিনী ইউনিয়নের বয়ারসিং সরদার বাড়ি জামে মসজিদ পুনঃনির্মাণের মধ্য দিয়ে তাদের এ কাজ শুরু হয়।

যশোর সেনানিবাসের ৯ ইস্টবেঙ্গল রেজিমেন্টের অধিনায়ক লে. কর্নেল ফারহান পিএসসি, মেজর তাজদিক, মেডিকেল অফিসার মেজর খাদেমুলসহ অন্যান্য কর্মকর্তাসহ সেনা সদস্যরা উক্ত নির্মাণ কাজে অংশ গ্রহণ করেন।

লে. কর্নেল ফারহান জানান, অতীতের মতো দেশের দুর্যোগকালীন সময়ে এগিয়ে এসেছে সেনাবাহিনী। তারা ঘূর্ণিঝড় আম্পানে ক্ষতিগ্রস্ত অসহায় মানুষের খাদ্যসামগ্রী ও চিকিৎসাসেবা দেয়ার পাশাপশি ক্ষতিগ্রস্ত বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান ও মানুষের বাসস্থান পুনঃনির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। কাজ শেষ না হওয়া পর্যন্ত তারা সেখানেই থাকবেন।

এদিকে, বাংলাদেশ বিমান বাহিনী সাতক্ষীরায় জরুরি বিমান পরিবহন এবং মেডিকেল ইভাকোয়েশন সহায়তা প্রদানসহ বিমান বাহিনীর নিজস্ব পরিবহনে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় ওয়াটার পিউরিফায়ার দিয়ে বিশুদ্ধ খাবার পানির ব্যবস্থা, প্রাইমারী মেডিকেল সাপোর্ট, দূর্যোগ ব্যবস্থাপনায় সহায়তা দিয়ে যাচ্ছে।

বিমান বাহিনীর প্রধান এয়ার চীফ মার্শাল মাসিহুজ্জামান সেরনিয়াবাত-এর নির্দেশনায় ঘূর্ণিঝড় উপদ্রুত এলাকার তারা এ সব কাজ করছেন বলে জানা গেছে। বাংলাদেশ বিমান বাহিনী জাতীয় যেকোন ধরনের দুর্যোগ মোকাবেলায় পেশাদারিত্বের সাথে কাজ করে যাচ্ছে বলে জানানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, ঘূর্ণিঝড় আম্পান পরবর্তী দুর্যোগ কবলিত এলাকায় বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর ৬টি পরিবহন বিমান ও ২৯টি হেলিকপ্টার সর্বদা প্রস্তুত রয়েছে।