'আম্পান আমাগো সর্বশান্ত করে গেছে। ঘরবাড়ি ভাসিয়ে পথে বসিয়ে দেছে। ঝড় আর বানের তোড়ে বসত ঘরের কিচ্ছু আর অবশিষ্ট নেই। জমানো টাকা না থাকায় নতুন করে ঘর বান্ধা ছেলো দুঃস্বপ্ন।'

এভাবেই নিজের অভিব্যক্তি প্রকাশ করেন নেবুনিয়া গ্রামের বৃদ্ধা লাইলা বিবি। তিনি বলেন, করোনা আর আম্পান ঈদের কথা ভুলিয়ে দিল। তবে ঘরবাড়ি ভেসে যাওয়ার তিন দিনের মাথায় সমকাল সহৃদ সমাবেশ ও আল খায়ের ফাউন্ডেশনের যৌথ উদ্যোগে দেওয়া টিন ঘুরে দাঁড়ানোর স্বপ্ন দেখালো। 

সমকাল সুহৃদ সমাবেশ ও আল খায়ের ফাউন্ডেশনের ত্রাণসামগ্রী পেয়ে রীতিমত আপ্লুত আম্পানে বিধ্বস্ত উপকূলবর্তী শ্যামনগরের একশ পরিবার।

ঘর বাধার জন্য টিনের পাশাপাশি খাদ্যসামগ্রী পেয়ে খুশি এসব পরিবার। আম্পানের আঘাতের পর থেকে সরকারের তরফ থেকে দেওয়া খাদ্যসামগ্রী খেয়ে কোনো রকমে দিন পার করছিল তারা। টিনের সাথে চাল, ডাল, চিড়া, গুড়, বিস্কুট, মুরি, চিনি পেয়েছেন তারা।

দাতিনাখালী গ্রামের বাধ বিধবা জহুরা বেগম বলেন, বুধবার রাতে জীবনের মায়া ছেড়ে দিয়েছিলাম। টানা তিন দিন ভিটেমাটি ছেড়ে রাস্তা আর সাইক্লোন শেল্টারে কাটাচ্ছি। টিন পেয়ে বসত ভিটেতে ফিরতে মন চাচ্ছে। 

পাশে দাড়ানো পুর্ব দুর্গাবাটি গ্রামের হামিদা বেগম বলেন, আম্পানের পর এত তাড়াতাড়ি ঘর বানাতে পারবো কল্পনা করিনি। আল খায়ের ফাউন্ডেশন ও সমকাল সুহৃদ সমাবেশের উপহার আমাদের কষ্ট কিছুটা কমিয়ে দিয়েছে। টিনের সাথে পাওয়া খাদ্যসামগ্রীতে পরিবারের কয়েক দিনের খাবার সংকটও কেটে যাবে। 

শনিবার সকাল ১১টায় বুড়িগোয়ালীনি ইউনিয়ন পরিষদ চত্ত্বরে দুর্গতদের মাঝে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ঘর নির্মাণের জন্য ঢেউটিনের পাশাপাশি চাল, ডাল আর চিড়া মুড়িসহ বিভিন্ন প্রকারের শুকনা খাবার তুলে দেয় সমকাল সুহৃদ সমাবেশ ও আল খায়ের ফাউন্ডেশন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন শ্যামনগরের সহকারী কশিনার (ভূমি) আব্দুল হাই সিদ্দিকী, আল খায়ের ফাউন্ডেশনের বাংলাদেশ কাট্রি ডিরেক্টর তারেক মাহমুদ, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের একাডেমিক সুপারভাইজার মিনা হাবিবুর রহমান,  বুড়িগোয়ালীনি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ভবতোষ কুমার মন্ডল প্রমুখ। 

আব্দুল হাই সিদ্দিকী বলেন, সমকাল ও আল খায়ের ফাউন্ডেশন দেখিয়ে দিয়েছে কিভাবে দুর্যোগে মানুষের পাশে দাঁড়াতে হয়। উপকূলীয় জনপদ শ্যামনগরের দুর্গতদের পাশে দাঁড়ানোর কারণে তিনি সমকাল ও আল খায়ের ফাউন্ডেশনের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। 

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন দৈনিক সমকালের সাতক্ষীরা প্রতিনিধি এম কামরুজ্জামান, শ্যামনগর সংবাদদাতা সামিউল মনির, বুড়িগোয়ালীনি ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান আব্দুল রউফ, সিডিইও ইয়ুথ টিমের পরিচালক ইমরান হোসেন, ইউপি সদস্য আবেদুর রহমান, সংবাদকর্মী বিলাল হোসেন, আব্দুল হালিম প্রমুখ।