বগুড়ায় আরও দুই চিকিৎসক, দুই নার্স এবং এক স্বাস্থ্যকর্মীসহ নতুন করে আরও ৩৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। বগুড়ার ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মোস্তাফিজুর রহমান তুহিন সোমবার রাত ৮টায় এ তথ্য জানান।

ডা. মোস্তাফিজুর রহমান তুহিন জানান, গত ১ এপ্রিল থেকে ৬২ দিনে বগুড়ায় মোট ৩৯২ জন কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হলেন। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ২১ জন। আর করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন ১১ জন। তবে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে মাত্র একজনের। বর্তমানে করোনা আক্রান্তদের মধ্যে ৪৫ জন বগুড়া মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। অন্যরা নিজ নিজ বাড়িতে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

তিনি জানান, সোমবার বগুড়ায় মোট ৩২২ টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। তবে এর মধ্যে ২০৮টি নমুনার ফলাফল পাওয়া গেছে। শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজে (শজিমেক) পরীক্ষা করা ১৮৮টি নমুনার মধ্যে ২৮টি পজিটিভ এসেছে। আর বেসরকারি টিএমএসের ২০টি নমুনায় পজিটিভ এসেছে আরও ৭টি। বগুড়ায় স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ এ পর্যন্ত মোট ৬ হাজার ৮২২টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। তার মধ্যে ৫ হাজার ৩৮৮টি নমুনার ফলাফল পাওয়া গেছে।

ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মোস্তাফিজুর রহমান তুহিন আরও জানান, নতুন আক্রান্ত ৩৫ জনের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ২০ জনের বাড়ি বগুড়া সদর উপজেলা এলাকায়। তাদের অনেকের বাড়ি শহরের মালগ্রাম, লতিফপুর কলোনী, সুত্রাপুর, শিববাটি, মালতিনগর, সাবগ্রাম, নারুলী, জলেশ্বরীতলা, আটাপাড়া ও হাকিরমোড় এলাকায়। এছাড়া সারিয়াকান্দির বাসিন্দা রয়েছেন ৬জন, শাজাহানপুরের ৪জন, গাবতলীর ২জন এবং শেরপুর, কাহালু ও নন্দীগ্রাম উপজেলা এলাকার আরও একজন করে ৩ জন রয়েছেন। তাদের নমুনা গত ২৯ মে থেকে ৩১ মে পর্যন্ত সংগ্রহ করা হয়েছে।

নতুন আক্রান্ত ৩৫ জনের মধ্যে ২৬ জন পুরুষ, ৮ জন নারী ও এক শিশু রয়েছে। তবে ইতিপূর্বে ৪১ থেকে ৫০ বছর বয়সীদের মধ্যে করোনা পজিটিভের হার বেশি দেখা গেলেও সর্বশেষ ২৪ ঘন্টায় তা দেখা যায়নি। বরং ১৮ থেকে ৪০ বয়সীদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ২২ জনকে সংক্রমিত হতে দেখা গেছে। ৪১ থেকে ৫০ বছর বয়সীদের মধ্যে মাত্র ৫ জন আক্রান্ত হয়েছেন। আর ৫১ থেকে ৭০ বছর বয়সী আক্রান্ত হয়েছন আরও ৭ জন।

সিভিল সার্জন ডা. মোস্তাফিজুর রহমান তুহিন বলেন, নতুন আক্রান্তদের মধ্যে কয়েকজনের উপসর্গ রয়েছে। তবে অধিকাংশই সুস্থ রয়েছেন। তাই তাদেরকে আপাতত নিজ নিজ বাড়িতে রেখেই চিকিৎসা দেওয়া হবে। তবে এদের মধ্যে কারও অবস্থা জটিল মনে হলে তাদের মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে স্থানান্তর করা হবে।