চিকিৎসক হওয়ার স্বপ্ন পূরণে দারিদ্র্যই বাধা সুমাইয়ার

প্রকাশ: ০৩ জুন ২০২০   

নাটোর প্রতিনিধি

অদম্য মেধাবী সুমাইয়া আক্তার- সমকাল

অদম্য মেধাবী সুমাইয়া আক্তার- সমকাল

অভাবের সংসারে থেকেও এবারের এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ ৫ পেয়েছে অদম্য মেধাবী সুমাইয়া আক্তার। নাটোর সদর উপজেলার আগদিঘা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে বিজ্ঞান বিভাগে এই সাফল্য অর্জন করেছে সে। ভবিষ্যতে সে চিকিৎসক হয়ে মানুষের সেবা করতে চায়। তবে সুমাইয়ার সে স্বপ্ন পূরণে একমাত্র বাধা দারিদ্র্য।

সুমাইয়ার বাবা আগদিঘা গ্রামের মাহবুব আলম দিনমজুর ও মা ফুলজান বেগম গৃহিনী। সুমাইয়ার বড় ভাই ফয়সাল আলম নাটোর এনএস সরকারী কলেজে বিএসসি (পাস) তৃতীয় বর্ষের ছাত্র। দিনমজুর বাবার আয়েই চলে তাদের চারজনের সংসার। মাটির দেয়াল ও টিনের একচালা জরাজীর্ণ বসতঘরে তাদের বসবাস। 

দারিদ্র্যের শতবাধা পেরিয়ে সুমাইয়ার সাফল্যে খুশি তার পরিবার, স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ প্রতিবেশীরা। তার সাফল্যের পেছনে শিক্ষকদের গাইডলাইন ও সহযোগিতাই সবচেয়ে বড় ভূমিকা রেখেছে বলে জানায় সুমাইয়া। বিশেষ করে স্কুলের সহকারী শিক্ষক শাহিন আলম বিনাপয়সায় প্রাইভেট পড়ানোয় তার প্রতি কৃতজ্ঞ সুমাইয়ার পরিবার।

সুমাইয়া জানায়, সে ভবিষ্যতে চিকিৎসক হয়ে মানুষের সেবা করতে চায়। তার  স্বপ্ন পূরণের পথে হয়তো একমাত্র দারিদ্র্যই বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারে। 

দিনমজুর বাবার একার আয়ে যেখানে সংসারের চাকা সচল রাখাই কঠিন, সেখানে সুমাইয়ার এই ইচ্ছা পূরণের সুযোগ অনিশ্চিত। 

তাই পরিবারটির পাশাপাশি এলাকার মানুষ ও শিক্ষকরা মনে করেন, সুমাইয়ার পড়ালেখা চালিয়ে নিতে এবং তার স্বপ্ন পূরণে সরকারি-বেসরকারিভাবে সহায়তা  দরকার।