পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে এক যুবলীগ নেতা রাস্তার বনায়নের গাছ কেটে ‘স’ মিলে নেয়ার ৩ ঘণ্টা পর আবার ফেরত দিয়েছেন।

বুধবার সকালে উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো মনিরুজ্জামান শেখ এ ঘটনা ঘটিয়েছেন।

স্থানীয়রা জানান, উপজেলার বালিপাড়া বনায়নের রাস্তার একটি বেল শিশুগাছ কেটে ‘স’ মিলে নিয়ে যান মনিরুজ্জামান। এ বিষয়টি নিয়ে এলাকায় ব্যাপক তোলপাড় হলে গাছ কাটার খবর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) কাছে পৌঁছায়।

যুবলীগ নেতার গাছ কাটার বিষয় ইউএনও জেনে মিলে গাছ না কেটে দ্রুত যে স্থানে গাছ ছিল সেখানে রেখে আসতে বলেন। ইউএনওর কথা শুনে যুবলীগ নেতা মনিরুজ্জামান টমটমে করে তিন ঘণ্টা পর মিল থেকে গাছ আবার গণি শেখ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কাছে রাস্তায় রেখে আসেন।

অভিযুক্ত যুবলীগ নেতা মনিরুজ্জামান শেখ বলেন, স্কুলের আসবাবপত্র বানানোর জন্য স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানকে জানিয়ে রাস্তার একটি বেল শিশুগাছ কেটে ‘স’ মিলে নেওয়া হয়। পরে ইউএনওর নির্দেশে মিলে গাছ না কেটে আবার ওই রাস্তায় গাছ রেখে আসি।

ইউএনও হোসাইন মুহাম্মদ আল মুজাহিদ বলেন, সরকারি গাছ কোন ব্যক্তির নেয়ার অধিকার নেই। বালিপাড়া এলাকার মনিরুজ্জামান নামে এক ব্যক্তি সরকারি গাছ কেটে মিলেআনলে তাকে গাছ ফেরত দিতে বলা হয়। এরপর সে রাস্তার সরকারি গাছ রাস্তায় রেখে আসে।