কসবার তিন এলাকা লকডাউন

প্রকাশ: ১০ জুন ২০২০   

নিজস্ব প্রতিবেদক,ব্রাহ্মণবাড়িয়া

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা পৌরসভার তিনটি এলাকাকে ‘রেড জোন’ হিসেবে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। বুধবার থেকে পৌরসভার আড়াইবাড়ি, শাহপাড়া ও শীতলপাড়া এলাকায় লকডাউন কার্যকর করা হয়েছে। 

পৌরসভার ওই তিন এলাকায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় উপজেলা প্রশাসন এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। 

লকডাউনের ফলে ওই এলাকাগুলোতে কঠোর অবস্থানে থাকবে প্রশাসন ও আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। পাশাপাশি সেখানকার প্রবেশ ও প্রস্থানের পথ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

এ ব্যাপারে কসবা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মাসুদ উল আলম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এছাড়াও করোনার সংক্রমণ রোধে কসবা পৌর মার্কেট সাময়িক বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, গত মঙ্গলবার পর্যন্ত কসবা উপজেলায় ৩৬ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে পৌরসভার বিভিন্ন মহল্লাতেই আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেশি। মঙ্গলবার কসবায় আক্রান্ত ১০ জনের ৮ জনই পৌর এলাকার বাসিন্দা।

প্রায় প্রতিদিনই পৌর এলাকার কেউ না কেউ নতুন করে আক্রান্ত হচ্ছেন। এর ফলে গত মঙ্গলবার বিকেলে জরুরি বৈঠকে বসে উপজেলা প্রশাসন। বৈঠকে পৌর এলাকাকে লকডাউন করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। আক্রান্তের সংখ্যা বিবেচনা করে পৌর এলাকাকে রেড জোন ধরা হয়েছে।

এ ব্যাপারে কসবা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাসুদ উল আলম বলেন, পৌরসভার আড়াইবাড়ি, শাহপাড়া ও শীতলপাড়া এলাকাকে লকডাউন করা হয়েছে। এমনিতেও যারা করোনায় আক্রান্ত হন তাদের বাড়ি লকডাউন করতে হয়। সেজন্য পুরো এলাকাকে আমরা লকডাউনের আওতায় নিয়ে এসেছি। আর পৌর মার্কেটে প্রচুর জনসমাগম হয়, সেজন্য মার্কেটটি আপাতত না খোলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, যে বাড়িগুলোতে করোনা রোগী আছেন এবং তাদের সংস্পর্শে যারা এসেছেন তাদের নমুনা নেওয়া হচ্ছে। লকডাউন করা এলাকার বাড়িঘরে খাবার পৌঁছে দেওয়ার জন্য কাউন্সিলরদের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।