মুক্তাগাছার মন্ডার মালিকের মেয়ের আত্মহত্যা

প্রকাশ: ২৫ জুন ২০২০   

মুক্তাগাছা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি

পূজা পাল

পূজা পাল

ঐতিহ্যবাহী মুক্তাগাছার মন্ডার মালিকের মেয়ে পূজা পাল (২১) গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। বুধবার সন্ধ্যায় ফ্যানের সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি।

পূজা পাল মন্ডা দোকানের মালিক রবীন্দ্রনাথ পালের ছোট মেয়ে। তিনি ঢাকার আমেরিকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ৩য় বর্ষের ছাত্রী ছিলেন। মিষ্টির জগতে যুগ যুগ ধরে সুনাম কুড়িয়ে আসা প্রায় দুইশ’ বছরের পুরনো মুক্তাগাছার মন্ডার ৩য় বংশধর রবীন্দ্রনাথ পালের ছোট মেয়ে পূজা পাল করোনাভাইরাসে তার ইউনিভার্সিটি বন্ধ হয়ে যাওয়ায় বাসায় অবস্থান করছিলেন। 

নিহতের পরিবার জানায়, বাসায় সারাদিন তিনি ল্যাপটপ ও ফোন নিয়ে ব্যস্ত থাকতেন। পরিবারের অন্যদের সঙ্গে সময় কম দিতেন। বুধবার দুপুরের খাবার খেয়ে তিনি তার কক্ষে ঘুমাতে যান। সন্ধ্যায় তার কক্ষের দরজা ভেতর থেকে বন্ধ দেখে পরিবারের সদস্যদের সন্দেহ হয়। এর পর তারা ঘরের দরজা ভেঙে দেখতে পান ফ্যানের সঙ্গে তিনি ঝুলছেন। পরে ওই রাতেই তার মরদেহ মুক্তাগাছা থানা পুলিশ উদ্ধার করে।

রবীন্দ্রনাথ পাল সাংবাদিকদের জানান, কেন তার মেয়ে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করল এটা তাদেরও প্রশ্ন। তবে কয়েকদিন ধরেই তার মন খুব খারাপ দেখতে পেয়েছেন তারা। কারও সঙ্গে তেমন একটা কথাও বলতো না।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে মুক্তাগাছা থানার ওসি বিপ্লব কুমার বিশ্বাস বলেন, প্রাথমিক তদন্তে আত্মহত্যার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। তবে তার আত্মহত্যার কারণ জানা যায়নি। তার ব্যবহৃত ল্যাপটপ ও মোবাইল ফোন যাচাই-বাছাই করে কারণ জানার চেষ্টা করা হচ্ছে।