খুবি শিক্ষার্থীদের অর্ধেক মেস ভাড়া মওকুফ

প্রকাশ: ০৪ জুলাই ২০২০     আপডেট: ০৪ জুলাই ২০২০   

খুবি প্রতিনিধি

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

করোনা পরিস্থিতিতে মেস মালিকদের কাছে ভাড়া কমানোর দাবি জানিয়ে আসছিলেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। অথচ আন্দোলনের সাথে যুক্ত এক শিক্ষার্থীকে হুমকি দেন মেস মালিকেরা। মেস ত্যাগে বাধ্য ওই শিক্ষার্থী হরিণটানা থানায় সাধারণ ডায়েরি করলে, শুক্রবার রাতে ভুক্তভোগীসহ অন্য শিক্ষার্থীদের সাথে মালিকপক্ষকে সমঝোতার জন্য থানায় ডাকা হয়। থানা পুলিশের হস্তক্ষেপে শিক্ষার্থীদের মেস ভাড়ার ৫৫ শতাংশ মওকুফ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়।

জানা যায়, শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টা থেকে সহকারী পুলিশ কমিশনার মো. হাফিজুর রহমান (অতিরিক্ত সোনাডাঙ্গা জোন) কেএমপি-এর উপস্থিতিতে তিন ঘণ্টার আলোচনায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সিদ্ধান্তে বিশ্ববিদ্যালয়ের হল রোড সংলগ্ন ইসলাম নগর এবং খানজাহান নগর এলাকার সকল বাসা ও ছাত্রাবাসের শিক্ষার্থীদের গত এপ্রিল মাস থেকে করোনা মহামারি যতদিন চলবে ততদিন আগের ভাড়ার (৪৫ শতাংশ) সাথে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করতে হবে।

আপোসনামায় প্রথম পক্ষ হিসেবে শিক্ষার্থীদের পক্ষে মো. আরমান আলী শেখ স্বাক্ষর করেন ও দ্বিতীয় পক্ষ হিসেবে মেস মালিকদের পক্ষে মো. কাওছার শিকদার স্বাক্ষর করেন। এ দিকে শিক্ষার্থীকে ভয়ভীতি দেখানো মেস মালিক কবির মোল্লার আত্মীয় হিদু মল্লিক শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আর ঝামেলায় না জড়ানোর মর্মে মুচলেকা দিয়েছেন।

ভাড়া কমানোর সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানিয়ে সাধারণ শিক্ষার্থীরা, অন্যান্য এলাকার মেস মালিকদের একইরকম মানবিক সিদ্ধান্ত নেওয়ার আহ্বান জানান। তাদের দাবি, পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে দ্রুত শতভাগ শিক্ষার্থীকে আবাসন সুবিধা দিতে যথাযথ ব্যবস্থা নিতে হবে, যাতে পরবর্তীতে এমন পরিস্থিতিতে আর পড়তে না হয়।

হরিণটানা থানার ওসি মো. মনিরুল ইসলাম বলেন, সারাদেশ জুড়েই শিক্ষার্থীরা আর্থিক সংকটের সম্মুখীন। তাই মানবিক দিক বিবেচনায় দুই পক্ষের আপোসের মাধ্যমে আমরা শিক্ষার্থীদের মেস ভাড়ার ৫৫ শতাংশ মওকুফের ব্যবস্থা করে দেই।