৯৯৯-এ ফোন

রক্ষা পেল হাওরে ডুবতে যাওয়া ১০ শিক্ষার্থী

প্রকাশ: ১৩ জুলাই ২০২০       প্রিন্ট সংস্করণ

কিশোরগঞ্জ অফিস

কিশোরগঞ্জের উত্তাল হাওরে ট্রলার বিকল হয়ে পড়ায় শনিবার সন্ধ্যায় বিপদে পড়েন ১০ শিক্ষার্থী। পরে ৯৯৯-এ ফোন পেয়ে তাদের উদ্ধার করে নৌ-পুলিশ - সমকাল

কিশোরগঞ্জের উত্তাল হাওরে ট্রলার বিকল হয়ে পড়ায় শনিবার সন্ধ্যায় বিপদে পড়েন ১০ শিক্ষার্থী। পরে ৯৯৯-এ ফোন পেয়ে তাদের উদ্ধার করে নৌ-পুলিশ - সমকাল

পাঁচ মোটরসাইকেলে করে কিশোরগঞ্জের হাওরে বেড়াতে গিয়েছিলেন গাজীপুরের টঙ্গী এলাকার ১০ শিক্ষার্থী। তারা একটি ট্রলারে মোটরসাইকেলগুলো তুলে হাওর উপজেলা মিঠামইনে গিয়ে সারাদিন অলওয়েদার সড়কে ঘোরাঘুরি করেন। ১১ জুলাই শনিবার তাদের এই হাওর ভ্রমণ কর্মসূচি ভালোভাবেই চলছিল। কিন্তু সন্ধ্যার পর আবার মোটরসাইকেল ট্রলারে চাপিয়ে উত্তাল হাওর দিয়ে ফিরছিলেন করিমগঞ্জের চামড়াঘাটের উদ্দেশে। জেলার করিমগঞ্জ উপজেলার সুতারপাড়া ইউনিয়নের চংনোয়াগাঁও এলাকায় পৌঁছার পর তাদের বহনকারী ট্রলারের পাখা ভেঙে যায় এবং হাওরের উত্তাল ঢেউয়ে ডুবে যাওয়ার মারাত্মক ঝুঁকিতে পড়ে।
তখন ট্রলার থেকে যাত্রীদের একজন পুলিশের ৯৯৯-এ ফোন দিয়ে তাদের উদ্ধারে সহযোগিতা চায়। পুলিশের হেডকোয়ার্টার থেকে তাদের উদ্ধারে বার্তা দেওয়া হয় করিমগঞ্জ থানা পুলিশকে। পরে করিমগঞ্জ থানা পুলিশ বাড়তি ট্রলার নিয়ে তাদের উদ্ধার করে।
করিমগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) নাহিদ হাসান সুমন বলেন, হেডকোয়ার্টারের বার্তা পেয়ে এ বার্তা দেওয়া হয় চামড়াঘাটের নৌ-পুলিশ ফাঁড়িকে। তারা দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে ১০ শিক্ষার্থী ও দুই মাঝিকে উদ্ধার করে চামড়াঘাটে নিয়ে আসে। তিনি জানান, করিমগঞ্জ থানা পুলিশ শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত এ উদ্ধার অভিযান তদারকি করে।


বিষয় : ৯৯৯-এ ফোন