সালথায় বিকাশ প্রতারক চক্রের ৩ সদস্য আটক

প্রকাশ: ১৮ জুলাই ২০২০   

সালথা (ফরিদপুর) প্রতিনিধি

আটককৃত তিন প্রতারক- সমকাল

আটককৃত তিন প্রতারক- সমকাল

ফরিদপুরের সালথায় বিকাশ প্রতারক চক্রের সক্রিয় ৩ সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ। শুক্রবার রাতে জেলার মধুখালী থানা ও মাগুরা জেলার শ্রীপুর থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করে সালথা থানা পুলিশ। আটককৃতদের শনিবার ফরিদপুর বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

অভিযুক্ত তিনজন হলেন- মাগুরা জেলার শ্রীপুর থানার চর-মহেশপুর গ্রাামের মৃত ইউসুফ শেখের ছেলে বাবলু শেখ (৩৮), সোনাইতুন্দী গ্রামের আতর বিশ্বাসের ছেলে আলমগীর হোসেন (৩০) ও ফরিদপুর জেলার মধুখালী থানার নিশ্চিতপুর গ্রামের সলেমান মোল্যার ছেলে আকাশ মোল্যা (২২)।

সালথা থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ সমকালকে বলেন, সালথা থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের একটি মামলার তদন্তের সকল কলা কৌশল ও আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার করে শুক্রবার রাতে সালথা থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে বিকাশ প্রতারক চক্রের সক্রিয় তিনজনকে আটক করা হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে বিকাশ প্রতারণার ব্যবহৃত ৯টি মোবাইল, বিভিন্ন কোম্পানির ১৭টি সিমকার্ড ও প্রতারনার মাধ্যমে হাতিয়ে নেওয়া ১৮ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়েছে।

ফরিদপুরের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার ও নগরকান্দা-সালথা সার্কেল এফ.এম মহিউদ্দিন ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সাংবাদিকদের বলেন, আটককৃত বিকাশ প্রতারক চক্রের ৩ সক্রিয় সদস্যদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, তারা ফরিদপুর জেলা ও পার্শবর্তী জেলা সমূহে মোবাইলে বিকাশের বিভিন্ন লোভ লালসা এবং ভয় দেখিয়ে প্রতারনার ফাঁদ তৈরি করে নিরীহ গ্রাহকদের কাছ থেকে টাকা পয়সা হাতিয়ে নেয়। একইভাবে গত ১ জুলাই সালথা থানা এলাকার জনৈক মোজাম্মেল শেখের ব্যক্তিগত বিকাশ নাম্বার থেকে কৌশলে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার বিষয়টি স্বীকার করে আটককৃত আসামীরা।

তিনি আরো জানান, এই সংঘবদ্ধ প্রতারকচক্রের সাথে যারা জড়িত আছে তাদেরকেও  গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত থাকবে। এ সময় তিনি বিকাশ প্রতারক চক্র থেকে গ্রাহকদের সতর্ক থাকার আহ্বান জানান।