চুরির অপবাদ দিয়ে দুই শিশুকে নির্মম নির্যাতন, গ্রেপ্তার ১

প্রকাশ: ২৯ জুলাই ২০২০   

ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি

হাত বেঁধে ঝুলিয়ে নির্যাতন করা হয় শিশু দুটিকে- সমকাল

হাত বেঁধে ঝুলিয়ে নির্যাতন করা হয় শিশু দুটিকে- সমকাল

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে সৌর বিদ্যুতের ব্যটারি চুরির অপবাদ দিয়ে দুই শিশুকে নির্মমভাবে নির্যাতনের অভিযোগে জীবন মিয়া নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার দুপুর ১২টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত জীবন মিয়া ওই দুই শিশুকে হাত বেঁধে ঝুলিয়ে নির্যাতন করে বলে জানা যায়। পরে রাত ১০টার দিকে পুলিশ অভিযান চালিয়ে জীবন মিয়াকে তার বাড়ি থেকে আটক করে।

অভিযুক্ত জীবন মিয়া উপজেলার সোহাগী ইউনিয়নের হাটুলিয়া গ্রামের সিরাজ মিয়া ওরফে ফেন্সি সিরাজের ছেলে।

স্থানীয়রা ও পুলিশ জানায়, ফেন্সি সিরাজের ঘর থেকে সৌর বিদ্যুতের একটি ব্যটারি মঙ্গলবার সকালে চুরি হয়। ব্যটারি চুরি হওয়ায় বেলা ১২টার দিকে হৃদয় মিয়া (১০) নামে এক শিশুকে ধরে নিয়ে যায় সিরাজের ছেলে জীবন মিয়া। হৃদয়কে ধরে নিয়ে জীবন তাদের ঘরে নিয়ে দুই হাত বেঁধে মারধর শুরু করে। এরপর ধরে আনা হয় বগাপুতা গ্রামের স্টেশন লেবার দিলু মিয়ার ছেলে আলাল মিয়াকে (১০)। দুই শিশুকে ধরে বিকেল ৩টা পর্যন্ত মারধর করা হয়। কিন্তু ব্যটারি চুরির স্বীকারোক্তি আদায় করতে পারেনি জীবন। ওই অবস্থায় স্থানীয় লোকজন দুই শিশুকে বন্দি অবস্থা থেকে উদ্ধার করে পুলিশের সহায়তার পরিবারের কাছে দিয়ে আসেন। কিন্তু সন্ধ্যার পর শিশুদের অবস্থা খারাপ হতে থাকলে পরিবারের লোকজন দুই শিশুকে হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে রাত ১০টার দিকে পুলিশ অভিযান চালিয়ে জীবন মিয়াকে তার বাড়ি থেকে আটক করে।

এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে নির্যাতিত শিশুর বাবা দিলু মিয়া বাদি হয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। এতে জীবন ও তার বাবা সিরাজকে আসামি করা হয়। পরে পুলিশ বুধবার সকালে মামলাটি নথিভুক্ত করে জীবন মিয়াকে গ্রেপ্তার দেখায়। এ ঘটনায় বুধবার দুপুরে জীবনকে আদালতে সোপর্দ করা হয়।

শিশু হৃদয় ও আলাল জানায়, তাদের ধরে নিয়ে মারধর করে চুরির স্বীকারোক্তি আদায়ের চেষ্টা করে জীবন। কিন্তু তারা চুরি করেনি।

পুলিশ হেফাজতে থাকা জীবন মিয়া বলেন, ওই দুই শিশু এলাকার চিহ্নিত চোর। শিশুরাই তার ঘরের ব্যটারি চুরি করেছে।

ঈশ্বরগঞ্জ থানার ওসি মো. মোখলেসুর রহমান আকন্দ বলেন, চোর সন্দেহে দুই শিশুকে মারধর করায় অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে।