ভোলায় ধর্ষণের অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা

প্রকাশ: ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২০     আপডেট: ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২০   

ভোলা প্রতিনিধি

মামুন হাওলাদার

মামুন হাওলাদার

ভোলায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণের অভিযোগে মামুন হাওলাদার নামে ইউনিয়ন ছাত্রলীগের এক নেতার বিরুদ্ধে মামলা করেছেন এক তরুণী। বুধবার রাতে ওই তরুণী নিজেই বাদী হয়ে ভোলা সদর মডেল থানায় এ মামলা করেন।

অভিযুক্ত মামুন হাওলাদার ভেদুরিয়া ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সভাপতি।

বৃহস্পতিবার দুপুরে নির্যাতনের শিকার ওই তরুণীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য সদর হাসপাতালে পাঠায় পুলিশ।

পুলিশ ও মামলা সূত্রে জানা গেছে, এইচএসসি পরীক্ষার্থী ওই তরুণী তিন মাস আগে সদর উপজেলার ভেদুরিয়া ইউনিয়নে খালার বাড়িতে বেড়াতে আসেন। এ সময় মামুন হাওলাদারের সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক হয়। তরুণীর খালা জানান, বিয়ের প্রলোভনে গত ৩০ আগস্ট দেখা করার কথা বলে এক প্রতিবেশীর বাড়িতে নিয়ে তার ভাগ্নীকে ধর্ষণ করেন মামুন। লজ্জা ও ভয়ে প্রথমে সে তা গোপন রাখে। গত ১ সেপ্টেম্বর মধ্যরাতে ঘরে ঢুকে মামুন আবারও তার ভাগ্নীকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন। এ সময় টের পয়ে তিনি এগিয়ে গেলে মামুন পালিয়ে যান।

ভিকটিমের খালা আরও জানান, ঘটনার পরদিন অর্থাৎ বুধবার তারা প্রথমে ভেলুমিয়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে অভিযোগ করতে যান। পরে ওই কেন্দ্রের কর্মকর্তার পরামর্শ অনুযায়ী রাতেই সদর থানায় তার ভাগ্নী বাদী হয়ে মামুনকে একমাত্র আসামি করে  মামলা করে। 

মামলা দায়ের পর থেকেই অভিযুক্ত মামুনকে গ্রেপ্তারে পুলিশ অভিযান শুরু করেছে বলে জানিয়েছেন ভোলা সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. এনায়েত হোসেন।