শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অর্থ আত্মসাৎ

সাবেক এমপি শামছুলের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

প্রকাশ: ১০ সেপ্টেম্বর ২০২০   

সমকাল প্রতিবেদক

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে প্রতারণা ও জালিয়াতি করে সরকারি অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে সাবেক এমপি প্রকৌশলী আলহাজ মো. শামছুল হক ভূঁইয়াসহ চারজনের বিরুদ্ধে দুটি মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। 

বৃহস্পতিবার দুদকের সহকারী পরিচালক মো. মহাতাব উদ্দিন বাদী হয়ে কমিশনের ঢাকা-১ কার্যালয়ে মামলা করেন। এর মধ্যে প্রতারণার মাধ্যমে জাল ডকুমেন্ট তৈরি করে মোহাম্মদ মোহেববুল্লাহ খানকে গৃদকালিন্দিয়া হাজেরা হাসমত ডিগ্রি কলেজে প্রভাষক হিসেবে স্থায়ী পদে নিয়োগ দিয়ে বেতন-ভাতা বাবদ সরকারের মোট এক কোটি দুই লাখ ৭২ হাজার টাকা আত্মসাতের অভিযোগে প্রথম মামলাটি করা হয়। 

এ মামলায় চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জের গৃদকালিন্দিয়া হাজেরা হাসমত ডিগ্রি কলেজের ইতিহাস বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মোহাম্মদ মোহেববুল্লাহ খান, কলেজ পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি সাবেক এমপি প্রকৌশলী আলহাজ মো. শামছুল হক ভূঁইয়া ও একই কলেজের নন-এমপিও প্রভাষক মো. বেলায়েত হোসেন খানকে আসামি করা হয়।

শিক্ষাগত যোগ্যতা স্নাতকোত্তর ডিগ্রি না থাকা সত্ত্বেও গৃদকালিন্দিয়া হাজেরা হাসমত ডিগ্রি কলেজে চাকরির আবেদন করে প্রভাষক পদে নিয়োগের মাধ্যমে সরকারের ৩১ লাখ ৭২ হাজার টাকা আত্মসাতের অভিযোগে দ্বিতীয় মামলা করা হয়।

এ মামলায় সাবেক এমপি আলহাজ মো. শামছুল হক ভূঁইয়া, মো. বেলায়েত হোসেন খান ও গৃদকালিন্দিয়া হাজেরা হাসমত ডিগ্রি কলেজের প্রভাষক কানিজ ফাতেমাকে আসামি করা হয়েছে।