নবীগঞ্জে গৃহবধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ

প্রকাশ: ০৫ অক্টোবর ২০২০     আপডেট: ০৫ অক্টোবর ২০২০   

নবীগঞ্জ (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার আউশকান্দিতে একটি পরিত্যক্ত ভবনে এক গৃহবধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই নারীকে উদ্ধার করে নবীগঞ্জ থানায় নিয়ে গেছে।

নির্যাতিত ওই গৃহবধূ জানান, রোববার বিকেল ৫টায় তিনি শেরপুর থেকে অটোরিকশা যোগে আত্মীয় বাড়িতে ফেরার পথে অটো চালকসহ ৩ যুবক হাত-পা বেঁধে তাকে অপহরণ করে। পরে গভীর রাতে আউশকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের একটি পরিত্যক্ত ভবনে নিয়ে যায়। সেখানে আরও ৬/৭ জন যোগ দিয়ে সবাই মিলে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ করে তাকে। এরপর সোমবার সকালে সিএনজি যোগে আবার তাকে আত্মীয়ে বাড়িতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

পরে স্থানীয় কয়েকজন মাতবর ও জনপ্রতিনিধি ঘটনাটি আপসের চেষ্টা চালান বলে জানা গেছে। কিন্তু এলাকায় জানাজানি ও ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে নবীগঞ্জ-বাহুবলের সার্কেল এএসপি পারভেজ আলম চৌধুরী ও নবীগঞ্জ থানার ওসি মো. আজিজুর রহমানের নেতৃত্বে পুলিশের দুটি টিম ঘটনাস্থলে পৌঁছে গৃহবধূকে উদ্ধার করে এবং তার জবানবন্দি নেয়।

পুলিশ জানায়, ওই গৃহবধূ একেক সময় একেক ধরনের বক্তব্য দিয়েছেন। কখনও বলেন ৭ জন তাকে ধর্ষণ করেছে, কখনও বলেন ৩ জন তাকে ধর্ষণ করেছে। আবার কখনও ১৪ জন তাকে ধর্ষণ করেছে বলে জানান। ফলে তার বক্তব্য খতিয়ে দেখছে পুলিশ। 

আউশকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মহিবুর রহমান হারুন বলেন, ওই নারীর অসংলগ্ন বক্তব্যে আমরা বিষয়টি নিয়ে ধুম্রজালের মধ্যে পড়েছি।

নবীগঞ্জ-বাহুবলের সার্কেল এএসপি পারভেজ আলম চৌধুরী বলেন, ওই গৃহবধূর ভিন্ন বক্তব্যের কারণে মূল ঘটনা উদঘাটনে বিলম্ব হচ্ছে। তবে শিগগিরই ঘটনা উদঘাটন হয়ে যাবে।

সোমবার রাত ১০টা পর্যন্ত ওই নারী ও তার স্বামীকে থানা হেফাজতে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ।