মেয়ে হত্যার বিচার দাবিতে রাজপথে বাবা-মা

প্রকাশ: ০৬ অক্টোবর ২০২০     আপডেট: ০৬ অক্টোবর ২০২০   

সমকাল প্রতিবেদক

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা থানার বিসারাবাড়ী গ্রামে শ্বশুরবাড়িতে গৃহবধূ ইয়াসমিনকে হত্যা করা হয়েছে অভিযোগ করে জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়েছে নিহতের পরিবার। মঙ্গলবার সকালে কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার বাঙ্গরায় এক মানবন্ধন থেকে ইয়াসমিনের বাবা আব্দুল আউয়াল এ দাবি জানান। 

তিনি অভিযোগ করেন, যৌতুকের দাবিতে গত ২ অক্টোবর রাতে নির্যাতন করে ইয়াসমিনকে হত্যা করে সিলিং ফ্যানে ঝুলিয়ে রেখে পালিয়ে যান তার স্বামী সাইফুল ও তার পরিবার। সাইফুল ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে কসবা থানায় হত্যা মামলা দায়ের করা হলেও পুলিশ এখনো তাদের গ্রেপ্তার করেনি। 

মানববন্ধনে ইয়াসমিনের মা হ্যাপি আক্তার অভিযোগ করেন, মেয়ের ঘাড়, পিঠসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে নির্যাতনের চিহ্ন ছিল। নির্যাতনে মৃত্যু হলেও আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দেওয়ার জন্য ইয়াসমিনের মরদেহ সিলিং ফ্যানে ঝুলিয়ে রাখা হয়।

ইয়াসমিনের বাবা অভিযোগ করেন, কসবা থানা পুলিশ মরদেহর ময়নাতদন্ত করার সময় পরিবারের কোনো সদস্যকে সঙ্গে যেতে দেয়নি। 

পুলিশ প্রথমে মামলা নিতে চায়নি বলেও অভিযোগ করেন তিনি। 

নয় মাস আগে কসবার বিসারাবাড়ী গ্রামের নূর মোহাম্মদের ছেলে সৌদিপ্রবাসী সাইফুলের সঙ্গে ইয়াসমিনের বিয়ে হয়। ইয়াসমিনের বাড়ি কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার বাঙ্গরা বাজার থানার সিমানাপাড় গ্রামে।