নোয়াখালী সদর উপজেলায় সৎমাকে পেট্রোল ঢেলে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় মামলা হয়েছে। হত্যার শিকার গৃহবধূ আছমা বেগমের বাবা আবুল কাশেম মঙ্গলবার সুধারাম মডেল থানায় এ মামলা করেন। 

মামলায় সৎছেলে কামাল উদ্দিনকে প্রধান আসামিসহ তিনজনের নাম উল্লেখ এবং অজ্ঞাতপরিচয় তিন-চারজনকে আসামি করা হয়েছে।

মামলায় সম্পত্তি-সংক্রান্ত বিরোধ ও পারিবারিক কলহের কথা বলা হয়েছে। গৃহবধূর বাবা মঙ্গলবার দুপুরে সাতজনের বিরুদ্ধে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন। পরে পুলিশ মামলাটি নথিভুক্ত করে। গত সোমবার আটক মামলার দ্বিতীয় আসামি ছালেপুর গ্রামের নুরুল আমিনের ছেলে শামীম হোসেনকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সুধারাম মডেল থানার পরিদর্শক (অপারেশন) এমদাদুল হক জানান, সদর উপজেলার কালা দরাপ ইউনিয়নের রামহরিতালুক গ্রামের প্রবাসী ইসমাইল হোসেন বাবুলের প্রথম সংসারের বড় ছেলে কামাল উদ্দিনের সঙ্গে তার দ্বিতীয় স্ত্রী আছমার সম্পত্তি-সংক্রান্ত ও পারিবারিক বিষয় নিয়ে দ্বন্দ্ব ছিল। ওই ঘটনার জেরে কামাল তার বাবার অনুপস্থিতিতে সোমবার সকালে ভাড়াটে সন্ত্রাসী নিয়ে এসে সৎমায়ের ওপর হামলা চালায়। আটক শামীম জিজ্ঞাসাবাদে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছে। তাকে বুধবার আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হবে।

সুধারাম মডেল থানার ওসি নবীর হোসেন বলেন, প্রধান আসামি কামাল উদ্দিন ও তিন নম্বর আসামি তারেক হোসেন চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকায় রয়েছে। বাকি আসামিদের গ্রেপ্তারের প্রক্রিয়া চলছে।