সড়ক ব্যবহারে বেপজার কাছে শুল্ক চায় চসিক

প্রকাশ: ২৩ অক্টোবর ২০২০   

চট্টগ্রাম ব্যুরো

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

চট্টগ্রাম নগরের সড়ক অবকাঠামো ব্যবহারের জন্য বাংলাদেশ রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ অঞ্চল কর্তৃপক্ষের (বেপজা) কাছে শুল্ক দাবি করেছে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন। বৃহস্পতিবার রাতে বেপজা চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল এসএম সালাহউদ্দিন ইসলামের সঙ্গে তার কার্যালয়ে সাক্ষাৎকালে চসিকের প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন এ দাবি জানান।

চসিক প্রশাসক বলেন, বেপজা জাতীয় অর্থনীতিতে সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে যাচ্ছে। চট্টগ্রাম জাতীয় অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির গুরুত্বপূর্ণ একটি ক্ষেত্র। চট্টগ্রাম নগরীতে যে বড় দুটি ইপিজেড রয়েছে, সেখানে বিরাট কর্মী বাহিনী কাজ করছে। ইপিজেড দুটি চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের সড়ক অবকাঠামো ব্যবহার করে তাদের ব্যবসা-বাণিজ্য পরিচালনা করে যাচ্ছে। এ ক্ষেত্রে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন তাদের কাছ থেকে ন্যূনতম একটি সার্ভিস চার্জ পেতে পারে। এই সার্ভিস চার্জ দিয়ে নগরীর সড়ক অবকাঠামোগুলো সংস্কার ও উন্নয়ন সম্ভব।

খোরশেদ আলম সুজন বলেন, যানবাহন চলাচলের জন্য ভালো মানের রাস্তা ও অবকাঠামো প্রয়োজন। কিন্তু সিটি করপোরেশনের একার পক্ষে রক্ষণাবেক্ষণ ও সংস্কার সম্ভব নয়। এই ব্যয় নির্বাহে বেপজার অংশীদারিত্ব দরকার। তা ছাড়া এর সুফল ভোগ করবে রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ অঞ্চলগুলোও।

তিনি আরও বলেন, বেপজা সরকারের কাছ থেকে অনেক ক্ষেত্রে কর অবকাশ সুবিধা পেয়ে থাকে। যেহেতু সিটি করপোরেশন তাদের শিল্পের বর্জ্যসহ পরিচ্ছন্ন রাখার ক্ষেত্রে অনেক সেবা দিয়ে যাচ্ছে, সেই বিবেচনায় যদি নূ্যনতম একটি সার্ভিস চার্জ সিটি করপোরেশন পায়, তাহলে সত্যিকার অর্থে অবদান হিসেবে চিহ্নিত হবে।

এ সময় বেপজার চেয়ারম্যান চসিক প্রশাসকের আহ্বানে সাড়া দেন। সড়ক শুল্কের বিষয়টি তিনি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে তুলে ধরবেন বলে জানান। সাক্ষাৎকালে চসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী মুহাম্মদ মোজাম্মেল হক, প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা মুফিদুল আলম, প্রশাসকের একান্ত সচিব মোহাম্মদ আবুল হাসেম, চট্টগ্রাম ইপিজেডের ভারপ্রাপ্ত মহাব্যবস্থাপক মশিউদ্দিন বিন মেসবাহ ও বেপজা চেয়ারম্যানের একান্ত সচিব আলী ইশতিয়াক উপস্থিত ছিলেন।