বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে গিয়ে পিটুনিতে প্রাণ হারালেন তরুণী

প্রকাশ: ২৫ অক্টোবর ২০২০   

শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরেছেন ফরিদা নামে এক তরুণী। ঘটনার পর প্রেমিকের বাড়ির লোকজন বাড়ি থেকে পালিয়ে গেছে।

স্থানীয়রা জানায়, শনিবার দুপুরে উপজেলার হাবিবুল্লাহ নগর ইউনিয়নের নগরডালা গ্রামের বাবর আলীর মেয়ে ফরিদা পার্শ্ববর্তী হামলাকোলা গ্রামের সওদাগরের ছেলে মজিদের বাড়িতে গিয়ে বিয়ের দাবিতে অবস্থান নেয়। এসময় মজিদের পরিবারের লোকজন বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করে। কিন্তু ফরিদা যেতে না চাওয়ায় তাকে বেধড়ক মারধর করে তারা। এ সময় ফরিদাকে আহতাবস্থায় এলাকাবাসী ভ্যানে করে শাহজাদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। হাসপাতালে নেওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তারপর থেকেই প্রেমিক মজিদসহ তার পরিবারের লোকজন বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে নিহত ফরিদার ভাবি জানান, দীর্ঘদিন যাবত সওদাগরের ছেলে মজিদের সঙ্গে ফরিদার প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিল। এর সূত্র ধরেই শনিবার দুপুরে গোসল শেষে ফরিদা বাড়ির কাউকে না জানিয়ে বিয়ের দাবিতে মজিদের বাড়িতে অবস্থান নেয়। এসময় মজিদের পরিবারের লোকজন ফরিদাকে মারধর করে বাড়ির বাইরে ফেলে রাখে। পরে সন্ধ্যায় এলাকার লোকজন ভ্যানে করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময় মারা যায় সে।

শাহজাদপুর থানার ওসি শহিদ মাহমুদ খান বলেন, খবর পেয়ে আমরা রাতে লাশ উদ্ধার করেছি। লাশের সুরতহাল শেষে ময়নাতদন্তের জন্য সিরাজগঞ্জ শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে।