এবার দলীয় অপরাধী ও অপকর্মকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর বার্তা দিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ। রোববার কুষ্টিয়া সদর উপজেলা পরিষদ হলরুমে এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এই হুঁশিয়ারি দেন।

হানিফ বলেন, গত কয়েক বছরে আমার জেলায় নান অপকর্মের সঙ্গে জড়িত ২ শতাধিক নেতাকর্মীকে জেলে যেতে হয়েছে। তাই অপরাধীরা এখনো সময় আছে সাবধান হয়ে যান। আমি কোন অন্যায় ও অন্যায়কারীদের পক্ষ নেয়নি কোন সময়। মনে রাখতে হবে এ জেলায় অপরাধীদের কোন স্থান নেই। 

তিনি বলেন, অপরাধের সঙ্গে যারা জড়িত তার দয়ভারও তাদেরই নিতে হবে। আমি ও আমার দল আওয়ামী লীগ কোন অপরাধীর অপরাধের দায়ভার নেব না। এ জেলায় অনেক বড় বড় প্রভাবশালী নেতা জেলে গেছেন, সামনে অনেকে যাবেন। তাই সাবধান হয়ে যান। অপরাধীকে এক চুলও ছাড় দেওয়া হবে না।

সাংবাদিক আমানুর রহমান আমানের সভাপতিত্বে যুবদের নিয়ে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যায়ের অধ্যাপক মাহবুবুল আরেফিন, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান আতা ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জুবায়ের হোসেন চৌধুর।

প্রধান অতিথি মাহবুবউল আলম হানিফ আরো বলেন, অনেকে দলের ছত্রছায়ায় থেকে অপরাধ করছেন এমন তথ্য আমাদের কাছে। আইনশৃংখলা বাহিনীও সেটা জানে। তাই অপরাধ ও অপকর্ম করে পার পেয়ে যাবেন এমন ভাবার কোন অবকাশ নেই। তাই যারা এখনো অপকর্মে জড়িত আছেন তারা সাবধান হয়ে যান। বাইরে থাকবেন না জেলে থাকবেন সে সিদ্ধান্ত আপনাদের।

তিনি বলেন, আইনশৃংখলা বাহিনী তাদের দায়িত্ব কঠোরভাবে পালন করছে, এ জন্য তাদের ধন্যবাদ। চাঁদাবাজ, ভূমি দখলকারী, সন্ত্রাসী, মাস্তানদের দিন শেষ। জেলার মানুষের শান্তিতে রাখতে যা যা করা দরকার সব করা হবে।