ফরিদপুরের ভাঙ্গায় বিল থেকে সেকেন্দার মোল্লা (৪৮) নামের এক ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার সন্ধ্যায় আলগী ইউনিয়নের চরকান্দার নাগদার বিলের মধ্য থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ। সেকেন্দার একই গ্রামের মৃত আ. আজিজ মোল্লার ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, সোমবার দুপুরে মাছ ধরতে স্থানীয় জেলেরা ওই বিলে যান। জাল পাতার সময় এরা একটি মরদেহ দেখে পুলিশকে খবর দেন তারা। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহটি উদ্ধার করেন। এসময় স্থানীয়রা চরকান্দা গ্রামের সেকেন্দারের মরদেহ বলে শনাক্ত করেন।

স্থানীয় সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ম ম সিদ্দিক মিয়া বলেন, সেকেন্দার মোল্লা কয়েক লাখ টাকা দেনা ছিলেন, দেনাদারের ভয়ে প্রায় দুই মাস ধরে আত্বগোপনে ছিলেন তিনি। মাঝে মধ্যে রাতে এসে পরিবারের সঙ্গে দেখা করে আবার রাতেই চলে যেতেন তিনি।

এ ঘটনায় নিহত সেকেন্দারের পরিবারের সদস্যরা অভিযোগ করে বলেন, অজ্ঞাতরা সেকেন্দারকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে বিলের মধ্যে ফেলে রাখে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ভাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শফিকুর রহমান জনান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে- কে বা কারা সেকেন্দারকে গত রাতে হত্যা করে লাশ বিলের মধ্যে ফেলে কচুরিপানা দিয়ে ঢেকে পালিয়ে গেছে। লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ফরিদপুর মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। পরবর্তীতে রিপোর্ট অনুযায়ী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।