নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার একলাশপুর ইউনিয়নে চাঞ্চল্যকর গৃহবধূ নির্যাতন ও পর্ণোগ্রাফি মামলার ৪ নম্বর আসামি ইস্রাফিল রিমান্ড শেষে আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।

শনিবার সন্ধ্যায় তাকে নোয়াখালী চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হয়। রাত ৮টা পর্যন্ত তার জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়।

জেলা জজ আদালতের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর (এপিপি) আলতাফ হোসেন জানান, গৃহবধূ নির্যাতন ও পর্ণোগ্রাফি মামলার আসামি ইস্রাফিলকে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হলে আদালতের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম শোয়েব উদ্দিন খান ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ড করেন।

প্রসঙ্গত, গত ২ সেপ্টেম্বর রাতে ওই নারীর আগের স্বামী তার সঙ্গে দেখা করতে তার বাবার বাড়ি একলাশপুর ইউনিয়নের জয়কৃষ্ণপুর গ্রামে তাদের বাড়িতে যান। বিষয়টি দেখে ফেলে স্থানীয় মাদক ব্যবসায়ী ও দেলোয়ার বাহিনীর প্রধান দেলোয়ার। রাত ১০টার দিকে দেলোয়ার তার লোকজন নিয়ে ওই নারীর ঘরে প্রবেশ করে পুরুষের সাথে অনৈতিক কাজ করার অপবাদ দিয়ে ওই নারীকে তাদের সাথে অনৈতিক কাজের প্রস্তাব দেয়। তাদের কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় নারীকে মারধর করা হয়। একপর্যায়ে পিটিয়ে নারীকে বিবস্ত্র করে ভিডিও ধারণ করে তারা। ৪ অক্টোবর দুপুরে ওই ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে জেলায় তথা দেশব্যাপী তোলপাড় সৃষ্টি হয়। পরে একে একে আসামিদের গ্রেপ্তার করা হয়।