কলাপাড়া উপজেলা শ্রমিকলীগের সহ-সভাপতি জুয়েল প্যাদার (৩৫) বাম হাতের কব্জি কেটে বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছে একদল সশস্ত্র সন্ত্রাসী। এ সময় তারা তার ডান হাত ও দুই পায়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে। বুধবার রাত ৮টার দিকে টিয়াখালী ইউনিয়নের রজপাড়ায় নাসির সিকদারের দোকানের সামনে এ ঘটনা ঘটে। 

পরিবারের দাবি, বুধবার রাত ৮টার দিকে টিয়াখালী ইউনিয়নের রজপাড়ায় সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা জুয়েলকে হত্যার উদ্দেশ্যে নৃশংসভাবে কোপায়। স্থানীয়রা তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে কলাপাড়া হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা দ্রুত বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান। 

জুয়েল প্যাদা উপজেলার টিয়াখালী ইউনিয়নের পূর্ব টিয়াখালী গ্রামের মো. ফারুক প্যাদার ছেলে। 

উপজেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি স্বপন হাওলাদার বলেন, 'খবর শুনে হাসপাতালে গিয়ে জুয়েলকে পাইনি। এর আগেই স্বজনরা তাকে চিকিৎসার জন্য বরিশালে নিয়ে যান।' 

কলাপাড়া থানার ওসি খোন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান জানান, জুয়েলও একাধিক মামলার আসামি। তিনি এর আগে র‌্যাবের হাতে অস্ত্রসহ গ্রেপ্তারও হয়েছিলেন। এ ঘটনায় জড়িতদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।