চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এম এ সালাম বৃহস্পতিবার সীতাকুণ্ড উপজেলায় জেলা পরিষদের বিভিন্ন চলমান কাজ পরিদর্শন করেছেন। এ সময় জেলা পরিষদ কর্তৃক নির্মিত বিভিন্ন স্মৃতিস্তম্ভসহ কুমিরা ও বাঁশবাড়িয়া ঘাট পরিদর্শন করেন তিনি।

পরিদর্শন করা চলমান কাজের মধ্যে মুকিম আফজাল সড়ক, কুমিরা ঘাট সংযোগ সড়ক, কাজী পাড়া সড়ক, বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল কালাম সড়ক এবং কুমিরা ঘাটের রিটেনিং ওয়াল নির্মাণ প্রকল্পসমূহ উল্লেখযোগ্য।

জেলা পরিষদ থেকে ৩৮ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিত মুকিম আফজাল সড়কটি উদ্বোধনের মাধ্যমে দিনব্যাপী পরিদর্শন কর্মসূচি শুরু হয়। পরিদর্শনকালে বীর মুক্তিযোদ্ধা, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও আওয়ামী নেতৃবর্গ এম এ সালামকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান।

এম এ সালাম বলেন, করোনা মুক্ত হওয়ার পর তিনি জেলা পরিষদের চলমান কাজ পরিদর্শনের উদ্দেশে পর্যায়ক্রমে সকল উপজেলা পরিদর্শনের পরিকল্পনা গ্রহণ করেছেন।

মহান মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি রক্ষার্থে চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ কর্তৃক নির্মিত স্মৃতিস্তম্ভসমূহ পরিদর্শনকালে উপস্থিত বীর মুক্তিযোদ্ধাদের উদ্দেশে এম এ সালাম বলেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা পরবর্তী প্রজন্মের কাছে ছড়িয়ে দিতে চাইলে মহান মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিসমূহ সংরক্ষণ করতে হবে। তাই বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা শেখ হাসিনা মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি রক্ষায় সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিচ্ছেন এবং বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সর্বোচ্চ সম্মান নিশ্চিত করেছেন।

দিনব্যাপী এ পরিদর্শনে চেয়ারম্যান এম এ সালামের সফরসঙ্গী হিসেবে ছিলেন- জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শাব্বির ইকবাল, সচিব মো. রবিউল হাসান, সিনিয়র সহকারী প্রকৌশলী মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম, সদস্য আ ম ম দিলসাদসহ জেলা পরিষদের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ।

এছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের কারিগরী কমিটির পরামর্শক/উপদেষ্টা প্রকৌশলী মেজবাউল আলম। স্থানীয় প্রতিনিধিগণের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাড়বকুন্ড ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাদাকাত উলতাহ মিয়াজী, বাঁশবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শওকত আলী জাহাঙ্গীর, কুমিরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোরশেদ হোসেন চৌধুরী প্রমুখ।