চট্টগ্রামের লোহাগাড়ায় বাড়ির টিন কেটে আনন্দ মোহন ধর (৬৫ ) নামের এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ তার মাদকাসক্ত ছেলেকে আটক করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার বিকাল ৪ টার দিকে তাকে আটক করা হয়। বুধবার গভীর রাতে উপজেলার উত্তর আমিরাবাদ ইউনিয়নের বণিক পাড়ায় এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। নিহত আনন্দ মোহন ধর ওই এলাকার মৃত সচীন্দ্র ধরের ছেলে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে লোহাগাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জাকির হোসেন জানিয়েছেন, অভিযুক্ত লিটনকে আমিরাবাদ ষ্টেশন থেকে আটক করা হয়েছে। তার কথাবার্তা এলোমেলা। তার লুঙ্গিতে রক্তের দাগ রয়েছে।

নিহতের পরিবারের ধারণা, নেশাগ্রস্ত অবস্থায় লিটন তার বাবাকে ধারালো দা দিয়ে এলোপাথারি কুপিয়ে হত্যা করে পালিয়ে যান।

নিহতের বড় ছেলে মিটন ধরের স্ত্রী আখি ধর জানান, বুধবার রাত ১০ টার দিকে শ্বশুরকে রাতের খাবার দিয়ে তিনি ঘরে চলে যান। সকালে ঘুম থেকে না উঠায় দরজা খুলে শ্বশুরকে ডাকতে গেলে তাকে  রক্তাক্ত অবস্থায় মেঝেতে পড়ে থাকতে দেখেন। সেই সময় বাড়ির দরজার পাশের টিন কাটা ছিল বলেও জানান তিনি।

অভিযুক্ত লিটনের স্ত্রী ঝিনু ধর জানান, তার স্বামী দীর্ঘদিন ধরে জুয়া নেশা করেন ও জুয়া খেলেন। তিনি নিষেধ করলে তাকে নির্যাতন করতেন।

নিহতের ভাই মিটন ধর জানান, তিনি ব্যবসার কাজে চট্টগ্রাম শহরে থাকেন। তার ভাই লিটন একজন মাদকাসক্ত। এর আগে তিনি ভাইয়ের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগও করেছিলেন।

আমিরাবাদ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এস এম ইউনুছ বলেন, ছেলেটি নেশাগ্রস্ত বলে প্রতিবেশীদের মাধ্যমে জেনেছি। প্রায়ই সে তার বাবাকে মারধর করতো। সকালে সে তার বাবাকে হত্যা করে পালিয়ে গেছে। ঘটনাটি মর্মান্তিক।

লোহাগাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জাকের হোসাইন মাহমুদ জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন শেষে ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হচ্ছে। এই ঘটনায় তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।