দুই বছরের শিশুকন্যাটির মৃতদেহ পড়ে ছিল খাটের ওপর। পাশেই আড়ার সঙ্গে ঝুলছিল মায়ের মৃতদেহ। বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জ পৌর শহরে একটি বাড়িতে এ ঘটনা ঘটেছে।

বৃহস্পতিবার সকালে ওই দুইজনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহতরা পৌর শহরের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের বদরপুর এলাকার আমজাদ হোসেনের স্ত্রী-সন্তান। মায়ের নাম সালমা বেগম (২৫) ও তার মেয়ের নাম আফ্রিন (২)।

মেহেন্দিগঞ্জ থানার ওসি আবিদুর রহমান জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে- সন্তানকে গলাটিপে হত্যার পর মা সালমা বেগম আত্মহত্যা করেছে। তবে মা-মেয়ে নিহতের ঘটনার রহস্যজনক উদঘাটনে তদন্ত চলছে। গৃহকর্তা আমজাদ হোসেনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসা হয়েছে।

আমজাদ হোসেনের মা রোকেয়া বেগম জানান, তার ছেলে কাঠের ব্যবসা করেন। বুধবার রাতে স্ত্রী সালমা বেগমের সঙ্গে আমজাদের প্রচণ্ড ঝগড়া হয়। রাতে আমজাদ ঘর থেকে বেরিয়ে গিয়ে পাশ্ববর্তী বোনের বাড়িতে ঘুমান।

তিনি বলেন, সকালে ছেলের কক্ষে ঢুকে দেখতে পাই, খাটের ওপর ওপর নাতি আফ্রিনের নিথর দেহ পড়ে আছে। আড়ার সঙ্গে ঝুলছে ছেলে বউ সালমা বেগম। আমার চিৎকারে বাড়ির অন্যান্য ঘর থেকে লোকজন ছুটে আসে। পরে পুলিশ এসে লাশ দুটি উদ্ধার করে।