পটুয়াখালীর বাউফলে লাউ গাছ নিয়ে ঝগড়ার এক পর্যায়ে রানী বেগম (৫২) নামের এক গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যা করেছেন তার এক প্রতিবেশী। এ ঘটনায় পুস্প বেগম নামের এক নারীকে আটক করেছে বাউফল থানা পুলিশ।

শনিবার সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে উপজেলার কেশবপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। রানী বেগমের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পটুয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয়রা জানায়, কেশবপুর গ্রামের কাশেম রাড়ি তার জমিতে সম্প্রতি লাউ গাছ লাগান। শনিবার সকালে কাশেম রাড়ির স্ত্রী রানী বেগম লাউ গাছের পরির্যা করছিলেন। লাউ গাছের লতা পাশের বাড়ির হালিম রাড়ির জমিতে পড়েছে-  অভিযোগে এ সময় রানী বেগমের সঙ্গে বাকবিতণ্ডা হয় হালিমর। এক পর্যায় হালিম রাড়ি তার হাতে থাকা দা দিয়ে রানী বেগমের ঘাড়ে কোপ দেন। এতে তিনি জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় একটি স্বাস্থ্য ক্লিনিক নিয়ে যান। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে বাউফল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার হচ্ছিল। কিন্তু পথেই তার মৃত্যু হয়। 

বাউফল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান জানান, রানী বেগমের লাশ উদ্ধার করে পটুয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় পুস্প বেগম নামের এক নারীকে আটক করেছে পুলিশ। পুষ্প অভিযুক্ত হালিম রাড়ির স্ত্রী। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।