জয়পুরহাটের পুরানাপৈল এলাকায় ট্রেনের সঙ্গে বাসের সংঘর্ষের ঘটনায় ৪ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে। রেলওয়ের পশ্চিমাঞ্চলের বিভাগীয় পরিবহন কর্মকর্তা নাসির উদ্দিনকে প্রধান করে এই কমিটি গঠন করা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে নাসির উদ্দিন জানান, আগামী ৭ কার্যদিবসের মধ্যে কমিটিকে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

ঘটনাস্থল থেকে তিনি আরও জানান, দুর্ঘটনার খবর পেয়ে উদ্ধারকারী একটি ট্রেন ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে। দুর্ঘটনা কবলিত ট্রেনটি উদ্ধারের পর এই রুটে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হবে।

এর আগে শনিবার সকালে জয়পুরহাটের পুরানাপৈল এলাকায় ট্রেনের সঙ্গে বাসের সংঘর্ষে অন্তত ১২ জন নিহত হয়েছেন। দুর্ঘটনায় আহত বেশ কয়েকজনকে সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় উত্তরাঞ্চলের সঙ্গে সারা দেশের রেল যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে।

নিহতদের মধ্যে ৬ জনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তারা হলেন- বাসচালক সদর উপজেলার হারাইল গ্রামের মামুনুর রশিদ, হিচমী গ্রামের মানিকের ছেলে রমজান, পাঁচবিবি উপজেলার আটুল গ্রামের সরোয়ার হোসেন, আরিফুর রহমান রাব্বি, আক্কেলপুর উপজেলার চক বিলা গ্রামের দুদু কাজীর ছেলে সাজু মিয়া ও নওগাঁর রানীনগর উপজেলার বিজয়কান্দি গ্রামের বাবু।

আহতদের মধ্যে ৩ জনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তারা হলেন- পাঁচবিবি উপজেলার ফারুখ হোসেন, একই উপজেলার সিরাজুল ইসলামের ছেলে জিয়া, টাঙ্গাইলের মাটিকাটা গ্রামের শুকুর আলীর জুলহাস। তারা সবাই বাসযাত্রী।

জয়পুরহাট ফায়ার সার্ভিস কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলাম জানান, পাঁচবিবি থেকে ছেড়ে আসা জয়পুরহাটগামী একটি বাস পুরানাপৈল রেলগট অতিক্রমকালে পার্বতীপুর থেকে ছেড়ে আসা রাজশাহীগামী একটি ট্রেন ওই বাসকে ধাক্কা দিলে বাসটি দুমড়ে-মুচড়ে যায় এবং ট্রেনটি লাইনচ্যুত হয়। ফায়ার সার্ভস ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার কার্যক্রম চালাচ্ছে। এখন পর্যন্ত ১২ জনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। আহত হয়েছেন আরও ৫ জন। তাদের জেলা আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।