সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান নিহতের ঘটনায় তার সহ‌যোগী শিপ্রা দেবনাথের বিরুদ্ধে পু‌লি‌শের দা‌য়ের করা মাদক মামলায় র‌্যাবের চূড়ান্ত প্রতিবেদনের বিষয়ে আদালতে নারাজি দিয়েছে বাদীপক্ষ। আবেদনটি আমলে নিয়ে শুনানির জন্য পরবর্তী দিন ধার্য করেছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার দুপুরে কক্সবাজারের রামুর জেষ্ঠ্য বিচারিক হাকিম দেলোয়ার হোসেনের আদালত এ আদেশ দেন বলে জানান শিপ্রার আইনজীবী অরূপ বড়ুয়া তপু। তিনি বলেন, একই সঙ্গে শিপ্রার জামিন স্থায়ী করেছেন আদালত।

গত ৩১ জুলাই টেকনাফের বাহারছড়া ইউনিয়নের শামলাপুর চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে নিহত হন সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান। এ ঘটনায় ওইদিন রাতেই কক্সবাজারের হিমছড়ি এলাকা সংলগ্ন নীলিমা রিসোর্টে অভিযান চালিয়ে মাদকদ্রব্য ও কম্পিউটারসহ কয়েকটি ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস জব্দ ও সিনহার সহযোগী শিপ্রা দেবনাথকে গ্রেপ্তার করে পু‌লিশ। পরদিন শিপ্রার বিরুদ্ধে পুলিশ বাদী হয়ে রামু থানায় একটি মাদক মামলা দায়ের করে।

গত ৯ ডিসেম্বর শিপ্রা দেবনাথ কক্সবাজার জেলা কারাগার থেকে জামিনে মুক্তি পান। আদালত পরবর্তীতে এই মামলা ও সিফাতের মামলা র‌্যাবকে তদন্ত করার দায়িত্ব দেয়।

র‌্যাব তদন্ত শেষে গত ১৩ ডিসেম্বর সিনহার বোনের মামলায় অভিযোগপত্র দাখিলের পাশাপাশি সিফাতের ২ মামলা ও শিপ্রার বিরুদ্ধে করা মাদক মামলার বিষয়ে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিল করে। গত ২১ ডিসেম্বর সিনহার বোনের মামলায় অভিযোগপত্রটি আদালত গ্রহণ করেন। পাশাপাশি সিফাতের ২ মামলার চূড়ান্ত প্রতিবেদন গ্রহণ করে তাকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।