ঢাকা বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

সিদ্ধিরগঞ্জে স্টিল মিলে বিস্ফোরণে মৃত বেড়ে ৪

আরেক শ্রমিকের মৃত্যু

সিদ্ধিরগঞ্জে স্টিল মিলে বিস্ফোরণে মৃত বেড়ে ৪

ছবি: ফাইল

সিদ্ধিরগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) ও নালিতাবাড়ী (শেরপুর) প্রতিনিধি

প্রকাশ: ১৮ অক্টোবর ২০২৩ | ১৭:৩০ | আপডেট: ১৮ অক্টোবর ২০২৩ | ১৭:৩০

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে শারমিন রি-রোলিং স্টিল মিলে গ্যাস মিটার বিস্ফোরণে দগ্ধ শ্রমিক মো. জাকারিয়া (২২) মারা গেছেন। এ নিয়ে ওই বিস্ফোরণে দগ্ধ পাঁচজনের মধ্যে চারজনই মারা গেলেন। 

গত মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে রাজধানীর শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে তাঁর মৃত্যু হয়। জাকারিয়া শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলার বড়ুয়াজানী গ্রামের আবদুল হাইয়ের ছেলে। দগ্ধ অপর শ্রমিক ইকবাল হোসেনের অবস্থাও আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

এ ঘটনায় মারা যাওয়া অন্য তিনজন হলেন- বড়ুয়াজানী গ্রামের মো. মোজাম্মেল, সাইফুল ইসলাম ও রংপুর কোতোয়ালি উপজেলার আফসাদপুর গ্রামের শরিফুল ইসলাম। তারা সবাই সিদ্ধিরগঞ্জ এলাকাতেই থাকতেন। গত শনিবার ভোরে গোদনাইলের সৈয়দপাড়া এলাকায় শারমিন স্টিল মিলে বিস্ফোরণ ঘটে।

বুধবার নালিতাবাড়ীর বড়ুয়াজানী গ্রামে নিহত তিন শ্রমিকের বাড়িতে গিয়ে পরিবারের সদস্যদের আহাজারি করতে দেখা যায়। জাকারিয়ার মৃত্যুর খবরে মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছেন তাঁর মা-বাবা। তারা বিলাপ করে বারবার মূর্ছা যাচ্ছিলেন। প্রতিবেশী মিলন হোসেন বলেন, চার ভাই ও এক বোনের মধ্যে জাকারিয়া ছিল ছোট। বড় ভালো ও মিশুক ছেলে ছিল সে।

এদিকে শারমিন রি-রোলিং মিলে বিস্ফোরণের ঘটনাকে দুর্ঘটনা বলে মনে করছেন বলে জানান সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি গোলাম মোস্তফা। ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্স নারায়ণগঞ্জের উপসহকারী পরিচালক ফকরুদ্দিন আহমেদ বলেন, গ্যাসের অতিরিক্ত চাপ কিংবা লিকেজ থেকে বিস্ফোরণ হয়ে থাকতে পারে।

তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানির নারায়ণগঞ্জ সদরের ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী মোস্তাক মোহাম্মাদ ইমরান বলেন, গ্যাসের মিটার বিস্ফোরণের ঘটনায় তদন্ত চলছে। তদন্ত রিপোর্ট হাতে পেলে জানাতে পারব কী কারণে বিস্ফোরণ হয়েছে।

আরও পড়ুন

×