ঢাকা বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

ধামরাইয়ে ককটেল বিস্ফোরণ, বিএনপির ২ কর্মী আটক

ধামরাইয়ে ককটেল বিস্ফোরণ, বিএনপির ২ কর্মী আটক

ছবি-সমকাল

ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি

প্রকাশ: ২৮ অক্টোবর ২০২৩ | ০৭:১৮ | আপডেট: ২৮ অক্টোবর ২০২৩ | ০৭:১৮

ঢাকার ধামরাইয়ে সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে সড়ক অবরোধ করে ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনার সঙ্গে জড়িত বিএনপির দুই কর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। 

শনিবার সকাল পৌনে ৭টার দিকে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের ঢুলিভিটা বাসস্ট্যান্ডের পাশে ধামরাই পৌরসভার বাজার রোড এলাকায় ধানসিঁড়ি আবাসন প্রকল্পের কার্যালয়ের সামনে পাকা সড়কের ওপর এ ঘটনা ঘটে।

বিএনপির নেতাকর্মীরা একটি মিছিল নিয়ে ধামরাই বাজার থেকে ঢুলিভিটার দিকে যাওয়ার সময় এ ঘটনা ঘটান বলে পুলিশ জানায়।

আটকরা হলেন- ধামরাই পৌরসভার চন্দ্রাইল এলাকার সুজন (২৯) ও ধামরাইয়ের গাংগুটিয়া ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য আবুল বাশার মন্টু (৫০)। তারা দুজনেই বিএনপির সক্রিয়কর্মী বলে জানা গেছে।

স্থানীয়রা জানান, সকালের দিকে হঠাৎ কয়েকজন জড়ো হয়ে একটি টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে সড়ক অবরোধ করেন। সেখানে ২-৩ মিনিট অবস্থানের পর তারা চলে যান। যাওয়ার সময় তারা একটি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটান। এ সময় তারা খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই ও শেখ হাসিনার পতন চাইসহ বিভিন্ন সরকার বিরোধী স্লোগান দেয় বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়। 

ধামরাই থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. হারুন-অর রশিদ বলেন, সকাল আনুমানিক ৬টা ৪৫ এর দিকে খবর পাই ঢুলিভিটায় ২০০/২৫০ জনের মতো লোকজন সরকার বিরোধী স্লোগানসহ একটি মিছিল নিয়ে ধামরাই যাত্রাবাড়ী মোড় থেকে ঢুলিভিটা যাওয়ার সময় এদের মাঝখান থেকে কিছু দুষ্কৃতিকারী সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে অবরোধ করে এবং জনসাধারণের চলাচলের গাড়িতে আগুন দেওয়ার চেষ্টা করে। তখন সড়ক অবরোধ করে তারা টায়ারে আগুন দেয় ও ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়। আশপাশের প্রত্যক্ষদর্শীরা দৌড়ে ঘটনাস্থলের দিকে এলে দুষ্কৃতকারীরা দৌড়ে পালিয়ে যায়। পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে ঘটনার সঙ্গে জড়িত দুইজনকে আটক করে। অন্যরা পুলিশের উপস্থিতি দেখতে পেয়ে দৌড়ে পালিয়ে যায়।

তিনি বলেন, ঘটনাস্থল থেকে দুইটি ককটেল ও চারটি চকলেট বোমাসহ বিস্ফোরক আলামত উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় জড়িত অন্যান্যদের আটক ও আটকদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলেও জানান পুলিশের এ কর্মকর্তা। 

আরও পড়ুন

×