ঢাকা বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

কাজী জাফর উল্লাহকে ‘রাজাকার’ বললেন এমপি নিক্সন

কাজী জাফর উল্লাহকে ‘রাজাকার’ বললেন এমপি নিক্সন

দরপুর উপজেলার ঢেউখালী ইউনিয়নে ওয়াজিবুল্লাহ্ হাওলাদারডাঙ্গী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠের আলোচনা সভায় বক্তব্য দেন নিক্সন চৌধুরী। ছবি: সমকাল

ফরিদপুর অফিস

প্রকাশ: ২৮ অক্টোবর ২০২৩ | ১৩:৩৫ | আপডেট: ২৮ অক্টোবর ২০২৩ | ১৩:৩৫

ফরিদপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য মজিবুর রহমান নিক্সন চৌধুরী তার আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ও আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য কাজী জাফর উল্লাহকে ‘রাজাকার’ ও ‘মোস্তাকের প্রেতাত্মা’ বলে আখ্যা দিয়েছেন। 

শুক্রবার রাতে সদরপুর উপজেলার ঢেউখালী ইউনিয়নে ওয়াজিবুল্লাহ্ হাওলাদারডাঙ্গী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে উঠান বৈঠক ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠানে এ সমালোচনা করেন তিনি।

মো. ফিরোজ হাওলাদারের সভাপতিত্বে সভায় নিক্সন চৌধুরী বলেন, ‘আপনি (জাফর উল্লাহ) পাকিস্তান আর্মিদের খাবার সাপ্লাই করতেন। কাজী সাহেব কুমিল্লা থেকে এসেছে, কাজী আর খন্দকার মোশতাকের মধ্যে কোনো পার্থক্য নেই।’

এর আগে ২৫ অক্টোবর সকালে ভাঙ্গার মানিকদহ ইউনিয়নের ফাজিলপুর গ্রামে এক উঠান বৈঠকে কাজী জাফর উল্লাহ বলেছিলেন, ‘নিক্সন নিজেকে সিংহ মনে করেন। নিক্সনকে আবার ভোট দিলে আপনাদের চাবাইয়া খাইয়া ফেলবে।’ এর জবাবে নিক্সন চৌধুরী বলেন, ‘আমি কারও মাথা চাবাইয়া খাই না। আপনি নির্বাচিত হলে জনগণের টাকা লুট করে পানামা ব্যাংকে পাচার করবেন।’ এমপি এ সময় কাজী জাফর উল্লাহকে ‘রাজাকার’ ও ‘মোস্তাকের প্রেতাত্মা’ বলেন নিক্সন চৌধুরী।

তিনি আরও বলেন, কাজী জাফর উল্লাহর সঙ্গে জনগণের কোনো সম্পর্ক নেই। তার নৌকার প্রার্থী হওয়ারও যোগ্যতা নেই। জনগণ এবার সংসদ নির্বাচনে কাজী সাহেবকে লাল কার্ড দেখিয়ে বিদায় দেবে।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন ফরিদপুর জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শাহাদাৎ হোসেন, সদরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কাজী শফিকুর রহমান, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান শিকদার প্রমুখ।

২০১৪ ও ২০১৮ সালের নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী কাজী জাফর উল্লাহকে পরাজিত করে দুই দফা ফরিদপুর-৪ আসনের স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য হন নিক্সন চৌধুরী।

আরও পড়ুন

×