ঢাকা মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

স্ত্রী ও সন্তানকে হত্যায় বাবার মৃত্যুদণ্ড

স্ত্রী ও সন্তানকে হত্যায় বাবার মৃত্যুদণ্ড

প্রতীকী ছবি

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি

প্রকাশ: ২৭ নভেম্বর ২০২৩ | ১৮:২০

ঝিনাইদহে স্ত্রী ও সন্তানকে হত্যার দায়ে মো. সুজনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। সোমবার দুপুরে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক আবদুল মতিন এ রায় দেন। দণ্ডপ্রাপ্ত সুজন শৈলকুপা উপজেলার দোহা-নাগিরাট গ্রামের বাসিন্দা।

মামলা থেকে জানা গেছে, ২০১০ সালে শৈলকুপা উপজেলার নোন্দীরগাতী গ্রামের সালেহা বেগমের মেয়ে ইয়াসমিনের সঙ্গে সুজনের বিয়ে হয়। এ দম্পতির পুত্রসন্তান রয়েছে। ২০১৬ সালে সুজন অন্য এক নারীর সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বিরোধ দেখা দেয়। এর জেরে সুজন তার স্ত্রী ও সন্তানকে শ্বশুরবাড়ি পাঠিয়ে দেয়। কিছুদিন পর স্ত্রী ও সন্তানকে বাড়ি নিয়ে আসে। ওই বছরের ১৮ ফেব্রুয়ারি থেকে তার স্ত্রী-সন্তানের সন্ধান পাওয়া যাচ্ছিল না। এরপর সুজনও বাড়ি ছেড়ে চলে যায়। মেয়ের সন্ধান না পেয়ে ২২ মার্চ ইয়াসমিনের মা সালেহা বেগম ঝিনাইদহ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা করেন। আদালতের নির্দেশে শৈলকুপা থানা পুলিশ তদন্ত করে ফরিদপুরের সদরপুর থানার মৈজদ্দি-মাতব্বরকান্দি গ্রামে সুজনের অবস্থান নিশ্চিত করে। তাকে গ্রেপ্তারের পর জিজ্ঞাসাবাদে স্ত্রী ও সন্তানকে হত্যার দায় স্বীকার করে। ২০১৭ সালের ১ জানুয়ারি পুলিশ আদালতে চার্জশিট দেয়।

আরও পড়ুন

×