চট্টগ্রাম নগরের দেওয়ানবাজারে নির্বাচনী প্রচারণার সময় ছুরিকাঘাতে আহত এক ছাত্রলীগকর্মী চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। শুক্রবার ভোর সাড়ে পাঁচটার দিকে চট্টগ্রাম মেডিকেল  কলেজ হাসপাতালে তিনি মারা যান। 

নিহত তরুণের নাম আশিকুর রহমান রোহিত। তিনি নগরের চকবাজার থানার ডিসি রোডের চাঁন মিয়া মুন্সি লেইনের আরবান আলীর বাড়ির মৃত আবদুস সোবহানের ছেলে। রোহিত ওমর গনি এমইএস কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্র।

এর আগে গত ৮ জানুয়ারি চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনের প্রচারণা শুরুর দিন আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী রেজাউল করিম চৌধুরীর প্রচারণায় অংশ নেয়ার সময় ছুরিকাঘাতে আহত হন তিনি। 

নিহতের পরিবার ও স্থানীয় ছাত্রলীগ কর্মীদের অভিযোগ, ১৭ নম্বর পশ্চিম বাকলিয়া ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগ সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থী শহীদুল আলমের অনুসারী মহিউদ্দিন, বাবু এবং সাবু তাকে অতর্কিত ছুরিকাঘাত করে। এর দু'দিন আগে এলাকায় মাদকবিরোধী পোস্টার লাগাতে গিয়ে অভিযুক্তদের সঙ্গে রোহিতের বাকবিতণ্ডা হয়েছিল। এ ঘটনায় অভিযুক্ত তিনজনকে আসামি করে একটি মামলাও দায়ের করেন রোহিতের ভাই জাহিদুর রহমান। ঘটনার পর থেকে তিন আসামি পলাতক রয়েছে।

বাকলিয়া থানার ওসি নেজাম উদ্দিন সমকালকে জানান, আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে ওই এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

এদিকে রোহিতের মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে ওই এলাকার ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা নগরীর গুলজার মোড় অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন। ঘটনার সাত দিনেও পুলিশ আসামিদের গ্রেপ্তার করতে না পারায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন তারা। একই সঙ্গে অবিলম্বে খুনীদের গ্রেপ্তারের দাবি জানান। পরে সড়ক থেকে বিক্ষুব্ধ ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের সরিয়ে দেয় পুলিশ।