তৃণমূল পর্যায়ে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের সুবিধা পৌঁছে দেওয়ার পদক্ষেপ শুরু হয়েছে খুলনা থেকে। আগামী শনিবার খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলার আটলিয়া গ্রামের মানুষের সঙ্গে সরাসরি কথা বলবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ভদ্রা নদী তীরবর্তী প্রত্যন্ত এই গ্রামে ইন্টারনেট সংযোগ না থাকায় বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ব্যবহার করে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সঙ্গে সংযুক্ত করা হবে গ্রামটিকে। 

ওই দিন মুজিববর্ষ উপলক্ষে দেশের ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে ঘরসহ জমি প্রদান কার্যক্রমের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী। খুলনায় প্রথম দফায় নতুন ঘর পাবে ৯২২ গৃহহীন পরিবার।

এদিকে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের সঙ্গে সংযুক্ত করতে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের কারিগরি টিম খুলনায় পৌঁছেছে। গত কয়েকদিন ধরে তারা সেখানে কাজ করছেন।

গৃহহীনদের মাঝে ঘর প্রদান কার্যক্রম এবং প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধনের বিষয়ে অবহিত করতে বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় করে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন।

তিনি জানান, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটকে কাজে লাগিয়ে প্রত্যন্ত কোনো গ্রামের সঙ্গে সরাসরি যুক্ত হওয়া এটাই প্রথম। শনিবারের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে গণভবন থেকে সরাসরি যুক্ত থাকবেন প্রধানমন্ত্রী। ইতোপূর্বে এসব অনুষ্ঠান উপজেলা সদরে হতো এবং ইন্টারনেট ক্যাবলের মাধ্যমে আমরা যুক্ত হতাম। কিন্তু উপজেলা সদর থেকে প্রায় ৭/৮ কিলোমিটার দূরের ওই গ্রামে ইন্টারনেট নেই। এজন্য উদ্বোধনী অনুষ্ঠান থেকে গ্রামটি বাদ পড়ে যাচ্ছিলো। পরে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ব্যবহারের প্রস্তাব দেওয়া হয়। সে অনুযায়ী কাজ চলছে। পরবর্তীতে প্রত্যন্ত গ্রামগুলোকে এভাবে সংযুক্ত করা হবে।

জেলা প্রশাসক জানান, ‘দেশের একজন মানুষও গৃহহীন থাকবে না’ মর্মে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা বাস্তবায়নে খুলনা জেলায় ‘যার জমি আছে কিন্তু ঘর নাই’ এমন ৫ হাজার ৮৮টি পরিবারের তালিকা তৈরি করা হয়েছে। প্রথম পর্যায়ে ৯টি উপজেলায় ৯২২টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের জন্য দ্বি-কক্ষ বিশিষ্ট একটি করে সেমিপাকা ঘর নির্মাণ করা হয়েছে। শনিবার এসব জমির দলিল, রেকর্ড তাদের হাতে তুলে দেওয়া হবে। দ্বিতীয় পর্যায়ে খুলনায় আরও দেড় হাজার ঘর নির্মাণের প্রস্তাবনা পাঠানো হয়েছে।

বিষয় : বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট

মন্তব্য করুন