ঘনকুয়াশার কারণে দুর্ঘটনা এড়াতে বঙ্গবন্ধু সেতুর ওপর দিয়ে প্রায় ৪ ঘণ্টা যানবাহন চলাচল বন্ধ ছিল। এর ফলে শুক্রবার ভোর থেকে সকাল ১১টা পর্যন্ত টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কের বঙ্গন্ধু সেতুর পূর্বপ্রান্ত থেকে এলেঙ্গা পর্যন্ত প্রায় ১৫ কিলোমিটার যানজটের সৃষ্টি হয়। 

দীর্ঘ যানজটে চালক ও যাত্রীরা চরম দুর্ভোগে পড়েন। তবে বেলা ১১টার পর থেকে মহাসড়কে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক হয়।

এর আগে গত বুধবার রাত ১২ থেকে বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা পর্যন্ত দুই দফায় সাড়ে তিন ঘণ্টা সেতুর টোল আদায় বন্ধ রাখে কর্তৃপক্ষ। এতে টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কের বঙ্গবন্ধু সেতু থেকে বাবনা বাইপাস পর্যন্ত প্রায় ১৫ কিলোমিটার যানজটের সৃষ্টি হয়।

পুলিশ জানায়, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর থেকেই কুয়াশা বাড়তে থাকে। রাত ৯টার পর কুয়াশার তীব্রতা আরও বাড়ে। ঘনকুয়াশার কারণে ১০ মিটার দূরের কিছুও দেখা যাচ্ছিলো না। এর ফলে প্রথম দফায় রাত সাড়ে ৯টার থেকে ১১টা পর্যন্ত সেতু কর্তৃপক্ষ যান চলাচল বন্ধ রাখে। পরে আবারো দ্বিতীয় দফায় রাত ২টা থেকে ৩টা পর্যন্ত সেতু বন্ধ রাখা হয়। 

এ ব্যাপারে বঙ্গবন্ধু সেতু-পূর্ব ট্রাফিক বিভাগের ইন্সপেক্টর ইফতেখার নাসির রোকন জানান, শুক্রবার সকাল ১১টার পর থেকে মহাসড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।